advertisement
আপনি পড়ছেন

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু বলেছেন, ন্যাটো সম্প্রসারণের ধারণাকে তুরস্ক সব সময় সমর্থন করে, কিন্তু সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সাথে সম্পর্ক রাখার কারণে ফিনল্যান্ড ও সুইডেনের জোটে যোগদানের ইচ্ছার বিষয়ে আঙ্কারার উদ্বেগ রয়েছে। ফিনল্যান্ড ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণার প্রেক্ষিতে গতকাল তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক বিবৃতিতে এ কথা জানান।

mevlut cavusoglu 1তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু

পিকেকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে দেওয়া অস্ত্র সহায়তার কথা উল্লেখ করে কাভুসোগলু বলেন, সন্ত্রাসবাদকে সমর্থনকারী দেশের ন্যাটোর মিত্র হওয়া উচিত নয়। ন্যাটো সদস্য হওয়ার জন্য ফিনল্যান্ড ও সুইডেন উভয়কেই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে সমর্থন করা বন্ধ করতে হবে এবং ন্যাটো সদস্য দেশগুলোর একে অপরের সাথে সংহতি দেখানো উচিত।

তুরস্ক কেনো ফিনল্যান্ড ও সুইডেনের ন্যাটো সদস্য হওয়ার ব্যাপারে বিরোধিতা করছে তা উল্লেখ করে কাভুসোগলু বলেন, সন্ত্রাসী গোষ্ঠী পিকেকে এবং এর সিরিয়ান শাখা ওয়াইপিজির সদস্যদের সাথে দুই দেশের সংযুক্ততার বিষয়ে আঙ্কারার আপত্তি রয়েছে। জোটের অনেক সদস্য ফিনল্যান্ড ও সুুইডেনের জোটে যোগদানের ধারণাকে স্বাগত জানিয়েছে। তবে তারাও তুরস্কের উদ্বেগগুলো সমাধান করার ব্যাপারে একমত প্রকাশ করেছেন বলে জানান তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

finland sweden and natoন্যাটো সদস্য হতে আগ্রহী সুইডেন ও ফিনল্যান্ড

তিনি বলেন, পিকেকেকে শুধু একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসাবে চিহ্নিত করার মাধ্যমে তুর্কি সরকারের প্রত্যাশা পূরণ হবে না। এক্ষেত্রে আরো কিছু পদক্ষেপের প্রত্যাশা রয়েছে তাদের।

তুরস্ক জানায়, পিকেকে তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ ঘোষিত একটি সন্ত্রাসী সংগঠন। গত ৩৫ বছরে নারী-শিশুসহ ৪০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যুর জন্য তারাই দায়ী।

উল্লেখ্য, কয়েক দশক ধরে সুইডেন ও ফিনল্যান্ড তাদের বৈদেশিক নীতির পরিপ্রেক্ষিতে এই অঞ্চলে একটি নিরপেক্ষ অবস্থান অবলম্বন করেছিল। তবে ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ তাদের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন ঘটায় তারা ন্যাটো জোটে যোগদানের ইচ্ছা প্রকাশ করে।