advertisement
আপনি পড়ছেন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশযান নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্স ও বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান টেসলার প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্কের বিরুদ্ধে বিমানবালাকে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনা হয়েছে। ঘটনাটি ২০১৬ সালের। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৯ মে) মার্কিন সংবাদমাধ্যম বিজনেস ইনসাইডারে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই তথ্য সামনে আসে। 

elon musk 2ইলন মাস্ক

প্রতিবেদনে নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই বিমানবালার বন্ধু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তাকে উদ্ধৃত করে বিজনেস ইনসাইডার জানিয়েছে, ইলন মাস্ক একজন বিমানবালার সামনে বিবস্ত্র হয়েছিলেন এবং জোরপূর্বক তার উরুতে স্পর্শ করেছিলেন। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইলন মাস্ক।

বিজনেস ইনসাইডার আরো জানিয়েছে, মাস্কের গালফস্ট্রিম জি৬৫০ইআর বিমান ক্রুদের একজন ছিলেন ওই নারী। মাস্ক প্রায়শই তাকে প্রাইভেট কেবিনে ডেকে শরীর মাসাজ করে দিতে বলতেন। এমনকি স্পেসএক্সও ওই কর্মীকে মাসাজ করার বৈধ লাইসেন্স নিতে উদ্বুদ্ধ করেছিল।

tesla and elon muskটেসলা

তবে মাস্কের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় এবং পরে বিষয়টি সবাই জানার আগেই ইলন মাস্কের পক্ষ থেকে আড়াই লাখ ডলার খরচ করে ঝামেলা মিটিয়ে ফেলা হয়েছে বলে জানায় বিজনেস ইনসাইডার। গণমাধ্যমটি আরো জানায়, যৌন হয়রানির অভিযোগে মামলা না করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে চুক্তি করতে হয়েছিল ওই বিমানবালাকে।

এদিকে, এমন গুরুতর অভিযোগের বিষয়ে মুখ খুলেছেন ইলন মাস্ক। আজ শুক্রবার (২০ মে) নিজের টুইটার আকাউন্টে মাস্ক লিখেছেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার বিরুদ্ধে এসব করা হচ্ছে। তবে কোনো কিছুই আমাকে থামাতে পারবে না।

তিনি বলেন, আমি ওই মিথ্যাবাদীকে চ্যালেঞ্জ করছি, যে দাবি করেছে তার বন্ধু আমাকে বিবস্ত্র দেখেছে। সে অভিযোগ প্রমাণ করতে পারবে না, কারণ ওরকম কিছু কখনও ঘটেনি। আরেক টুইটে মাস্ক বলেছেন, সামনের মাসগুলোতে তার ওপর রাজনৈতিক আক্রমণ বাড়বে বলে তার ধারণা।