advertisement
আপনি পড়ছেন

ফ্রান্সকে আফ্রিকার বিষয়ে হস্তক্ষেপ বন্ধ করার দাবিতে গতকাল বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকায় বিক্ষোভ হয়েছে। দেশটির অন্যতম রাজধানী প্রিটোরিয়ায় ফরাসি দূতাবাসের সামনে অনুষ্ঠিত এই বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারীরা ফ্রান্সকে আফ্রিকা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানায়। খবর আনাদোলু।

protest in pretoriaফ্রান্সের বিরুদ্ধে প্রিটোরিয়ায় বিক্ষোভ

বিক্ষোভে অংশ নেওয়া পার্লামেন্টের তৃতীয় বৃহত্তম দল ইকোনমিক ফ্রিডম ফাইটার্সের (ইএফএফ) নেতা জুলিয়াস মালেমা বলেন, ফ্রান্স প্রায় সবগুলো আফ্রিকান দেশে ঔপনিবেশিক নিয়ন্ত্রণে শক্তিশালী ও ভীতিজনক সামরিক ঘাঁটি তৈরি করেছে। আফ্রিকা মহাদেশে বহু অভ্যুত্থান এবং অবৈধ ও বেআইনিভাবে বহু সরকারকে উৎখাতে ফ্রান্স ভূমিকা পালন করছে। আবার আফ্রিকার অনেক দেশে নাগরিকের অসন্তুষ্টি সত্ত্বেও স্বৈরাচারী নেতাদের ক্ষমতায় রাখার জন্য ফ্রান্স দায়ী। তাই এ মহাদেশ থেকে ফ্রান্সকে বের হয়ে যেতে হবে।

আফ্রিকা দিবস উদযাপনের অংশ হিসাবে লাল টি-শার্ট এবং লাল বেরেট পরিহিত শত শত ইএফএফ সমর্থক প্রতিবাদে যোগ দেয়। তারা স্লোগান দেয়, ফ্রান্সকে অবশ্যই আফ্রিকা ত্যাগ করতে হবে। বিক্ষোভকারীরা আফ্রিকায় ফরাসি হস্তক্ষেপের নিন্দা জানিয়ে নানা ধরনের প্ল্যাকার্ড বহন করেছিল। পরে তারা দক্ষিণ আফ্রিকায় নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূত অরেলিয়ান লেচেভালিয়ারের কাছে তাদের দাবি সংবলিত স্মারকলিপি হস্তান্তর করে।

julius malema leader of effবক্তব্য রাখছেন ইএফএফ নেতা জুলিয়াস মালেমা

স্মারকলিপিতে ইএফএফ জানায়, ফ্রান্সকে তার সাবেক আফ্রিকান উপনিবেশগুলোর সাথে করা কিছু চুক্তির অবসান ঘটাতে হবে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, ফ্রাঙ্ককে এসব দেশের মুদ্রা হিসেবে ব্যবহার করার নির্দেশনা সংবলিত চুক্তি।

মালেমা বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত আফ্রিকান দেশগুলো নিজেদের রিজার্ভ ব্যাংক পুনরুদ্ধার করতে না পারবে, ততক্ষণ পর্যন্ত তারা মুক্তি লাভ করতে পারবে না। এই কারণে সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে আফ্রিকা মহাদেশের ঐক্য জরুরি।

এদিকে এক সাক্ষাৎকারে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত লেচেভালিয়ার বলেন, মহাদেশের সমস্ত সমস্যার জন্য ফ্রান্সকে দায়ী করা ভুল। ফ্রান্স আজ আফ্রিকার অংশীদার ও বন্ধু। আমরা একটি স্বাধীন আফ্রিকার পক্ষে দাঁড়িয়েছি এবং আমরা আফ্রিকার সাথে আমাদের বন্ধনকে শক্তিশালী করতে চাই।

আফ্রিকা দিবসটি প্রতি বছর ২৫ মে ইথিওপিয়াতে আফ্রিকান ঐক্য সংস্থা গঠনের জন্য স্মরণ করা হয়, যা এখন আফ্রিকান ইউনিয়ন নামে পরিচিতি লাভ করেছে।