আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 51 মিনিট আগে

টকফল হিসেবে লটকনের বেশ কদর রয়েছে। গ্রামে এর বেশি পরিচিতি থাকলেও শহরের বাজারও ভরে গেছে মৌসুমী এই ফলে। দামে সস্তা এই ফলের রয়েছে নানা গুণও। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ এই ফলটি শহরেও আজকাল বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। সাধারণত এই রসালো ফলটি আমরা খোসা ছুলে খেয়ে নেই। কিন্তু এই ফলটি আরো নানা উপায়ে খাওয়া যায়। তেমন কিছুই থাকছে আমাদের আজকের আয়োজনে।

lotkon jelly

জেলি মাখানো পাউরুটি কমবেশি আমরা সবাই খাই। একবার অরেঞ্জ জেলি এরপর হয়তো আপেল বা স্ট্রবেরি জেলি। এই জেলিটা যদি হয় লটকনের জেলি তখন কেমন হবে? চলুন তবে জেনে নেই লকনের জেলি তৈরির নিয়মাবলী-

খোসা ছাড়ানো দুই কাপ লটকন নিয়ে নিন। এরপর প্যানে চার কাপ পানি দিয়ে লটকনগুলো ভালো করে সেদ্ধ করে নিন। পানি অর্ধেক হলে নামিয়ে অন্য বাটিতে পানি ভালো করে ছেঁকে নিতে হবে। ছেঁকে নেয়া পানি অন্য প্যানে ঢেলে পরিমাণ মতো চিনি মিশিয়ে ফুটিয়ে নিতে হবে। ফুটে উঠলে ভিনেগার দিয়ে আবার ফুটিয়ে নিতে হবে। ঘনত্ব বুঝে নামিয়ে নিতে হবে। গরম গরম কাচের জারে ভরে রাখুন ঘণ্টা দশেকের জন্য। সন্ধ্যায় বানালে পরদিন সকালেই জেলি খাওয়ার উপযুক্ত হয়ে যাবে। ফ্রিজে রেখে সংরক্ষণ করুন বেশ কিছু দিন।

জেলির পর চলুন শিখে নেই লটকনের জুস তৈরির রেসিপি। এই জুস পানে আপনি আবার লটকনের প্রেমে পড়ে যাবেন। জুস বানাতে আধাকাপ লটকনের রস, এক চামচ লেবুর রস, একটি বড় লেবু টুকরো করে কাটা, পরিমাণ মতো চিনি, সামান্য আদা কুচি ও পুদিনা পাতা নিতে হবে।

জারে লেবুর টুকরা, আদা কুচি, পুদিনা পাতা কুচি ও চিনি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার এতে বরফ কুচি, লেবুর রস ও পরিমাণ মতো পানি ভালোভাবে মিশিয়ে পরিবেশন করুন। পানির বদলে স্প্রাইটও মেশাতে পারেন।

Add comment

Security code
Refresh