আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 27 মিনিট আগে

কুরবানি ঈদে যে শুধু মাংসই খাওয়া হয় তা কিন্তু নয়। পছন্দের শীর্ষে থাকা গরু, ছাগলের ভুড়ি বা বটও খাওয়া হবে দেদারসে। কিন্তু ঝামেলার কারণেই হোক আর এই রান্না না জানার কারণেই হোক অনেকেই খেতে পারেন না এই সুস্বাদু পদটি। তাদের জন্যই সহজ উপায়ে মজাদার এই খাবার রান্নার রেসিপি নিয়ে আজকে হাজির হয়েছি।

beef vuri or bot

ঝামেলা মুক্তভাবে গরুর ভুড়ি বা বট রান্না করার প্রথম ধাপটি হচ্ছে ভুড়ি পরিষ্কার করা। ভুড়ি চুন দিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করে সেদ্ধ করে নিতে হয়। ভুড়ি চুনে ভালো করে দলাই মলাই করে নিতে হবে। এতে করে যদি কোন জীবাণু থাকে তাহলে তা মরে যাবে। দুইবার ভালো করে চুনের পানিতে ধুয়ে পরিষ্কার করার পর ঠান্ডা পরিষ্কার পানিতে ভালোভাবে ধুয়ে নেয়ার পর একটি হাড়ি ভরে পানি নিয়ে তাতে ভুড়ি আর এক টেবিল চামচ আদা বাটা ও সামান্য হলুদ দিয়ে চুলার আচ হাই হিটে রেখে ভুড়ি আবার সেদ্ধ করে নিতে হবে। বলক আসলে ভুড়িগুলো নেড়ে উপর-নিচ করে ভালোভাবে সেদ্ধ করে নিতে হবে। ভুড়িগুলো যখন সেদ্ধ হয়ে শক্ত হয়ে আসবে তখন চুলা থেকে নামিয়ে ভালোভাবে ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে পরিমাণ মতো সাইজে কেটে টুকরো করে নিতে হবে।

তিন কেজে পরিমাণ ভুড়ি রান্না করার জন্য একটি প্যানে আধা কাপ তেল গরম করে তাতে দিয়ে দিতে হবে দুইটা তেজপাতা, দুই টুকরো দারুচিনি, কয়েকটা এলাচ ও লবঙ্গ। একটু ভেজে দিয়ে দিন তিন কাপ পরিমাণ পিঁয়াজ কুচি। ভাজতে থাকুন যতক্ষণ না পিঁয়াজের কালার হালকা গোল্ডেন না হয়। পিঁয়াজের কালার চলে আসলে এতে দিয়ে দিতে হবে হাফ চামচের মতো আদা-রসুন বাটা ও স্বাদ মতো লবণ।

কিছুক্ষণ ভাজার পর এতে দিয়ে দিতে হবে দুই টেবিল চামচ হলুদ, এক টেবিল চামচ মরিচ গুঁড়ো, এক টেবিল চামচ ধনে গুঁড়ো, হাফ টেবিল চামচ জিরা গুঁড়ো আর টেলে নেয়া জিরা গুঁড়ো এক টেবিল চামচ। এবার মশলাটা ভালোভাবে নেড়েচেড়ে মিশিয়ে নিয়ে এতে হাফ কাপ পানি দিয়ে মশলা কষিয়ে নিতে হবে। মশলা কষে তেল উপরে উঠে আসলে এতে দিয়ে দিতে হবে ভুড়ির টুকরোগুলো, ভালোভাবে মিশিয়ে ঢেকে দিতে হবে মিনিট দশেকের জন্য চুলা হাই হিটে রেখে। দশ মিনিট পর ভুরি থেকে পানি বের হয়ে আসলে আবার ভুড়িগুলো নেড়েচেড়ে এতে দিয়ে দিতে হবে দুই কাপ পানি। এই পর্যায়ে চুলার আচ মিডিয়াম হিটে রেখে ঢেকে দিন ঘণ্টা খানেকের জন্য।

এক ঘণ্টা পর চুলার আচ বাড়িয়ে নিয়ে ভুড়ি নেড়ে নেড়ে ঝোল শুকিয়ে নিতে হবে। ঝোল শুকিয়ে মাখা মাখা হয়ে আসলে ভুড়ি খাওয়ার উপযোগী হয়ে যাবে। কিন্তু ভুড়ি বা বট সাধারণত কালচে করে ভেজে খাওয়া হয়। তাই অন্য চুলা হাই হিটে রেখে ফ্রাইপ্যান গরম করে নিয়ে গরম প্যানে ভুড়িটা দিয়ে তাতে সামান্য টেলে নেয়া জিরা গুঁড়ো ও সামান্য গোলমরিচের গুঁড়ো দিয়ে ভাজতে থাকুন। ভাজতে ভাজতে ভুরির কাঙ্ক্ষিত কালার চলে আসলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন ভাত, পোলাউ, রুটি বা পরোটার সাথে।

Add comment

Security code
Refresh