advertisement
আপনি দেখছেন

এক বছরও হয়নি নতুন বেতন স্কেল পুরোপুরি কার্যকর হওয়ার। তার মধ্যেই আবারও তোড়জোড় শুরু হয়েছে সরকারী কর্মচারীদের আরেক দফা বেতন বাড়ানোর। এই কারণে নয় সদস্যের একটি কমিটিও গঠন করার প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

symbol of bangladesh

গতকাল মঙ্গলবার প্রজ্ঞাপন জারি করে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে। জীবনযাত্রার ব্যয়ের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে সার্বিক বিচার-বিশ্লেশণ করে একটি সুপারিশমালা প্রণয়ন করার কথা বলা হয়েছে কমিটিকে। আর এর জন্য ৯০ দিন সময় বেধে দেওয়া হয়েছে।

নয় সদস্যের এই কমিটিতে রাখা হয়েছে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, অর্থ বিভাগ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, পরিকল্পনা বিভাগ, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, পরিসংখ্যান বিভাগ, বাংলাদেশ ব্যাংক ও হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ের প্রতিনিধিদের।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলমকে করা হয়েছে কমিটির আহ্বায়ক। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘মূল্যাস্ফীতির সঙ্গে সরকারি কর্মচারীদের বেতন সমন্বয় করা কিভাবে করা হবে তার জন্য এই কমিটি গঠন করা হয়েছে। ’

সরকারি কর্মচারীদের নতুন করে বেতন-ভাতা বাড়ার আলোচনা অবশ্য অনেক আগেরই। জীবনযাত্রার ব্যয়ের কথা সামনে এনে প্রতি বছর পাঁচ শতাংশ করে বেতন বৃদ্ধির কথা উল্লেখ রয়েছে নতুন পে স্কেলে।