advertisement
আপনি দেখছেন

দিন যতো যাচ্ছে অনলাইন মার্কেটে কেনাকাটার দিকে মানুষ বেশি ঝুঁকছে। তার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে প্রতারণা। লক্ষ্মীপুরের যুবক পিয়াস সরকার এই রকমের একটি প্রতারণার শিকার হয়েছেন। ‘স্মার্ট শপ ঢাকা’ নামের একটি ফেসবুক পেজের মাধ্যমে এমন প্রতারণার শিকার হন তিনি। পিয়াস লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডে বাসিন্দা।

watch and onion

‘স্মার্ট শপ ঢাকা’ পেজ থেকে ১৮০০ টাকা মূল্যের একটি ঘড়ির অর্ডার করেন পিয়াস। ঢাকা থেকে এসএ পরিবহনের মাধ্যমে তার নামে ঘড়ির একটি বক্স আসে। বক্সটি পাওয়ার পর সেটি খুলে তার ভিতরে ঘড়ির বদলে দুটি পেয়াঁজ পান তিনি। এ ঘটনায় পিয়াস লক্ষীপুর সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। বুধবার রাতে পিয়াস নিজেই গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

পিয়াস জানান, ‘সোমবার (১ এপ্রিল) ‘স্মার্ট শপ ঢাকা’ নামক একটি অনলাইন পেইজ থেকে একটি স্মার্ট ঘড়ি অর্ডার করি। ঘড়িটির মূল্য ১৮শ' টাকা। ঘড়িটি হাতে পেতে বাড়তি ৬০ টাকা এসএ পরিবহনকে দেই।’

‘মঙ্গলবার সন্ধার দিকে এসএ পরিবহনের কাউন্টার থেকে পার্সেলটি গ্রহন করি। পরে খুলে দেখি এর মধ্যে দুইটি পেয়াঁজ। পরে অনলাইনের ভাউচারে থাকা নাম্বারে কল দিয়ে ফোন বন্ধ পাই।’

ঘটনার পুরো বিষয়টি জিডিতে দেয়া হয়েছে বলেও জানান পিয়াস। পরে তিনি সাধারণ ডায়েরির একটি ফটোকপি এসএ পরিবহণে জমা দেন।

এসএ পরিবহনের লক্ষ্মীপুর শাখার ব্যবস্থাপক নুর জানান, তারা ইতোমধ্যেই সাধারণ ডায়েরির কপি এবং পণ্যটির বক্স মূল শাখায় পাঠিয়েছেন। সেখান থেকে তারা যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।