advertisement
আপনি দেখছেন

বর্তমান সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় ইসলামি বক্তা মিজানুর রহমান আজহারীর কঠোর সমালোচনা করেছেন তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী। সেইসঙ্গে তার আমৃত্যু কারাদণ্ড দাবি করেছেন তিনি।

azhari basar parliament

গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে তিনি বলেন, আজ এই সংসদে দাঁড়িয়ে দাবি জানাই, অবিলম্বে রাসুলের অবমানাকারীদের আমৃত্যু কারাদণ্ড প্রদানে আইন প্রণয়ন করা হোক।

এদিন রাতে প্রেসিডেন্টের ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী বলেন, মিজানুর রহমান আজহারী রাসুলকে নিয়ে কটাক্ষ করে বলেছেন রাসুল নাকি নিরক্ষর। তিনি পবিত্র মাজার লাথি মেরে ভেঙে ফেলতে বলেছেন। তিনি শহীদ মিনার, স্মৃতিসৌধ, বিজয় দিবস পালনকে শিরক করা বলে ফতোয়া দিয়েছেন। এমন সব বক্তব্য দিয়ে আজহারী কীভাবে দেশের বাইরে চলে যায়? স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে জবাব দিতে হবে। সেখানে বসে আজহারী আবার ইসলাম নিয়ে অপপ্রচারের কাজ শুরু করেছে।’

এরপর তিনি বলেন, দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা বিধানে ধর্মীয় বিভ্রান্তি নিরসনকল্পে জাতীয় ঈদগাহে প্রধানমন্ত্রীসহ প্রধান বিচারপতির উপস্থিতিতে রাসুলের অবমাননাকারীদের আমৃত্যু কারাদণ্ড প্রদানে আইন প্রণয়ন করার দাবি জানাই।

কেউ ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিলে তার ৭ বছর থেকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান করার আহ্বান জানান তিনি।

উল্লেখ্য, এর আগে মিজানুর রহমান আজহারী কীভাবে দেশ ছাড়ল তা নিয়ে সংসদে প্রশ্ন তুলেছিলেন ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।

অন্যদিকে, এই সংসদে মিজানুর রহমান আজহারীর পক্ষেও কথা বলেছেন এক এমপি। বগুড়া-৭ আসনের স্বতন্ত্র এমপি রেজাউল করিম বাবলু মঙ্গলবার সংসদে আজহারীর বিরুদ্ধচারণকারীদের সমালোচনা করেন।

এমপি বাবলু বলেন, যারা মিজানুর রহমান আজহারীর সমালোচনা করে, তারাই ফিল্ডে গিয়ে টিনএজ ছেলে-মেয়েদের নিয়ে বুক ফাইট্যা যায় গান করে তাদের উত্ত্যক্ত করে। তাদের উচ্ছৃঙ্খল করে। তারা সমাজের অন্যান্য অনাচারের বিরুদ্ধে কথা বলেন না বলেও উল্লেখ করেন।

sheikh mujib 2020