advertisement
আপনি দেখছেন

মুজিববর্ষ পালনের নামে কোনো চাঁদাবাজি করা যাবে না বলে নেতাকর্মীদের স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। মঙ্গলবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলটির খুলনা বিভাগীয় অঞ্চলের বিশেষ যৌথসভায় তিনি এমন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

kader al commitee

ওবায়দুল কাদের বলেন, আর কয়েকদিন পরই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ‘মুজিববর্ষ’ শুরু হবে। আর তা পালন করতে গিয়ে কোনো রকম বাড়াবাড়ি করা যাবে না। মুজিববর্ষ পালনের নামে কোনো চাঁদাবাজি করা যাবে না। এ নিয়ে শেখ হাসিনার কড়া সতর্কবার্তা রয়েছে।

তিনি বলেন, সুশৃঙ্খলভাবে মুজিববর্ষ পালন করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পতাকা উপরে তুলে ধরতে হবে। বিশ্বকে জানান দিতে হবে।

বিরোধীপক্ষকে দুর্বল ভাবার কোনো কারণ নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপি একটা ঐক্যবদ্ধ প্ল্যাটফর্ম। তাদের কোনো সুযোগ দেয়া যাবে না। তারপরও আওয়ামী লীগে কিছু সুবিধাবাদী আছে, যারা বিএনপির জন্য কাজ করে। এই লোকগুলোকে খুঁজে বের করতে হবে। তাদের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। যেন মুজিববর্ষ পালনে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না হয়।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, দলকে আরো সুসংগঠিত করতে হলে ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন করতে হবে। নয়তো দুঃসময়ে নেতাকর্মীদের মাঠে পাওয়া যাবে না। পাশাপশি তৃণমূল পর্যায়ে সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করতে হবে। কারণ তারাই আওয়ামী লীগের প্রাণ।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাছিম, বিএম মোজাম্মেল হক, অসিম কুমার উকিল, খুলনার মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

sheikh mujib 2020