advertisement
আপনি দেখছেন

নীলফামারীতে গণহিস্টিরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ২৯ নারী শ্রমিক আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি হলে সেখানকার অন্য রোগীরা ভয়ে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়। আজ শনিবার এ ঘটনা ঘটে।

ganhistoria affected 29 labour

জানা যায়, গোল্ডেন টাইমিং বিডি লিমিটেড নামে এক কারখানায় কাজ করার সময় দুইজন নারী শ্রমিক অসুস্থ অনুভব করলে তাদের হাসপাতালে নেয়া হয়। এর অল্প সময় পর একের পর এক নারী শ্রমিক অসুস্থ হতে থাকেন। পড়ে কারখানাটি বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।
হাসপাতালে একের পর এক রোগী আসতে থাকায় আতঙ্কিত হয়ে পড়ে আগে ভর্তি থাকা রোগীরা। এক পর্যায়ে সেখান থেকে চলে যেতে শুরু করে ভর্তি থাকা রোগীরা।

গোল্ডেন টাইমিং বিডি লিমিটেড কারখানাটি চীনভিত্তিক এভারগ্রিন প্রোডাক্ট বিডি লিমিটেডের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। যার কারণে অনেকেই মনে করেছিল, কারখানার শ্রমিকদের মধ্যে করোনাভাইরাস দেখা দিয়েছে। আর এই জন্যই এত দ্রুত সবাই আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন।

এ বিষয়ে হাসপাতালের চিকিৎসকেরা বলেন, ওই কারখানা থেকে আসা শ্রমিকরা প্রত্যেকে একই রকম উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হয়েছেন। তারা আতঙ্কের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। এ রোগকে গণহিস্টিরিয়া বলা হয়। এই রোগের উপশমের উপায় হলো- আক্রান্ত ব্যক্তি আতঙ্কিত হয়ে পড়ে এবং এর ফলে পেট খারাপ হয়ে যায়।

নারী শ্রমিকদের বেশিরভাগই এখন সুস্থ আছেন বলেও জানান তারা।

কারখানার শ্রমিক হাসি বেগম (২০) বলেন, সকাল ১০টার দিকে দুইজন শ্রমিক বমি করতে করতে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এ ঘটনার পর সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়ে এবং একের পর এক অসুস্থ হতে শুরু করে।

আক্রান্তের একজন শ্রমিক নীপা রায় (১৮) বলেন, তিনি ভয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে হাসপাতালে এসে চিকিৎসা নেয়ার পর সুস্থ বোধ করছি।

এদিকে, হাসপাতালে আগে থেকে ভর্তি থাকা রোগীরা পালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে মহিলা ওয়ার্ডের কর্তব্যরত নার্সরা জানান, বেলা ১১টা পর্যন্ত হাসপাতালের মহিলা ওয়ার্ডে ৭৭ জন রোগী ছিলেন। এরপর ওই কারখানার শ্রমিকরা আসতে শুরু করলে বেশিরভাগ রোগী পালিয়ে যায়।

পুরুষ ওয়ার্ড থেকেও রোগীরা পালিয়েছে। সেখানে ভর্তি ছিলেন ৬২ জন। কিন্তু একটা সময় পর সেখানে কেউ ছিল না।