advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলা নতুন বছরের প্রথম দিনের উৎসব বাঙালির নিজস্ব উৎসব। বৈশাখের পয়লা দিন নিয়ে অসংখ্য গান- কবিতা আছে। অথচ গতকাল দেশজুড়ে পালিত হওয়া বৈশাখ আয়োজনের বড় একটা অংশজুড়ে ছিলো হিন্দি গান। সংস্কৃতি ব্যক্তিত্বরা এটিকে দেখছেন সাস্কৃতিক আগ্রাসন হিসেবে। 

pohela boishakh 1423

অন্য যে কোনো সময়ের মতো এবারও পয়লা বৈশাখ ঘিরে উৎসাহ উদ্দিপনা ছিলো তুমুল। গানের আয়োজন, হস্তশিল্পের মেলাসহ নানা রকম আয়োজনে বরণ করে নেয়া হয়েছে নতুন বাংলা বছর। কিন্তু পুরো ব্যাপারটাতে ছন্দ পতনের ছিলো হিন্দি গানের সুউচ্চ আওয়াজ। 

হিন্দি গান বাজতে শোনা গেছে রাজধানীজুড়ে ঘুরে বেড়ানে বৈশাখের সাজে সাজানো পিকআপ ভ্যানগুলোতে। বিভিন্ন কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্যের বাজারজাতের উদ্দেশ্যে এটা করেছে। 

অথচ কয়েক বছর আগেও এমন দৃশ্য কল্পনা করা যেতো না। বাংলাদেশের মানুষ বৈশাখ বরণ করতে নিজস্ব আয়োজনে। তাতে থাকে একান্ত নিজস্ব গান। থাকতো বাউলদের মন উদাস করা পরিবেশনা। শোনা যেতো মাটি ও মানুষের গান। কিন্তু সেই দিনগুলো হারাতে বসেছে অদ্ভুত এক প্রজন্মের কাছে। বাংলা সংস্কৃতির নিজস্ব উৎসব বৈশাখে পড়েছে অন্য সংস্কৃতির কালো থাবা।

 

আপনা আরো পড়তে পারেন 

শেখ হাসিনা: ধর্মের বিরুদ্ধে লিখলেই মুক্তচিন্তা নয়

মারা গেছেন গেরিলা যোদ্ধা মোরশেদ চৌধুরী

পহেলা বৈশাখে জন কেরির শুভেচ্ছা

ভূমিকম্পে হেলে পড়েছে অন্তত ১০টি ভবন

sheikh mujib 2020