advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধ করতে ফের বাড়ানো হলো সব দোকানপাট, বিপণি-বিতান ও শপিংমল বন্ধ রাখার সময়। আজ বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ সিদ্ধান্তের কথা জানায় ঢাকা মহানগর দোকান মালিক সমিতি।

shopping mall emptyফের বাড়লো দোকানপাট ও শপিংমল বন্ধের সময়

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশের সব দোকানপাট, বিপণি-বিতান ও শপিংমল বন্ধ থাকবে। এই সময়ের মধ্যে দোকান মালিক ও কমর্চারীদের ঘরে থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে কাঁচাবাজার, মুদি দোকান, সুপারশপ ও ওষুধের দোকান খোলা থাকবে।

দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন ও মহাসচিব মো. জহিরুল হক ভূঁইয়া স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশে করোনার বিস্তার ঠেকাতে আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বর্ধিত করেছে সরকার। তাই সরকারের সিদ্ধান্তের সঙ্গে সমন্বয় করে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এর আগে প্রথম দফায় গত ২৫ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দোকানপাট, বিপণি-বিতান ও শপিংমল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় দোকান মালিক সমিতি। পরে দ্বিতীয় দফায় তা ৪ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়। আজ তৃতীয় দফায় সময় বাড়ানো হলো।

এদিকে গতকাল বুধবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এক প্রজ্ঞাপন আদেশে বলা হয়, আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত দেশব্যাপী সাধারণ ছুটি থাকবে। সঙ্গে ১০ ও ১১ এপ্রিলের সাপ্তাহিক ছুটি যোগ হবে। এই সময়ের মধ্যে সব ধরনের সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

পাশাপাশি প্রথম ধাপের ছুটিতে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল। সেটি বাড়ানো হবে না। এক্ষেত্রে জনগণের প্রয়োজন অনুযায়ী রিকশা-ভ্যানসহ যানবাহন, রেল, বাস পর্যায়ক্রমে চালু করা হবে।

আদেশে আরো বলা হয়, জরুরি পরিষেবা যেমন বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস, ফায়ার সার্ভিস, পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট অফিস খোলা থাকবে। কৃষিপণ্য, সার, কীটনাশক, খাদ্য, শিল্প পণ্য, চিকিৎসা সরঞ্জামাদি, জরুরি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য পরিবহন এবং কাঁচাবাজার, খাবার, ওষুধের দোকান ও হাসপাতাল খোলা থাকবে।