advertisement
আপনি দেখছেন

নানা নাটকীয়তা পর ফাইনালি ছাড়া পেলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর ও তার সহযোগী সোহরাব। সোমবার দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে ডিবির কার্যালয় থেকে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

vp nur releasedশেষ পর্যন্ত ছাড়া পেলেন ভিপি নূর

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা মুহম্মদ রাশেদ খান।

এর আগে রাত পৌনে ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে তাদের দুই জনকে পুনরায় ডিবির গাড়িতে করে কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে পরে পরিবারের জিম্মায় তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডিবির যুগ্ম-কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, অফিসিয়ালি নূরকে আগেই ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিন্তু যেহেতু সে অসুস্থ, তাই চিকিৎসার জন্য ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল। অসুস্থতার কারণেই মূলত ডিবির গাড়িতে করে তাকে পৌঁছে দেওয়ার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

vp nur hospitalডিবি কার্যালয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ায় হাসপাতালে নেওয়া হয় ভিপি নূরকে

তবে হাসপাতাল থেকে আবারো ডিবি কার্যালয়ে নেওয়ার বিষয়ে ডিএমপির একটি সূত্র জানায়, তাদের অফিসিয়াল ফর্মালিটির মাধ্যমে ছেড়ে দেওয়ার জন্যই আবার ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

এর আগে সোমবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে রাজধানীর মৎস্যভবন এলাকা থেকে নূরসহ ৭ জনকে আটক করে পুলিশ। পরে ডিবির যুগ্ম-কমিশনার মাহবুব আলম জানান, নূরসহ ৭ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু পরবর্তীতে জানা যায়, ডিবির তত্ত্বাবধানে নূরসহ ও সোহরাবকে ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, রোববার রাতে রাজধানী লালবাগ থানায় ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে নূরসহ ছয় জনকে আসামি করে মামলা করেন ঢাবির এক ছাত্রী। ওই মামলাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত দাবি করে এর বিরুদ্ধে সোমবার সন্ধ্যায় বিক্ষোভ মিছিল বের করে ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। এ সময় মৎস ভবন এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

বিশৃঙ্খলা চেষ্টার অভিযোগে বিক্ষোভ মিছিল থেকে আটক করে তাদের ডিবি অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়। এর ঘণ্টাখানেকের মধ্যে তাদের ছেড়ে দেওয়ার কথা জানায় পুলিশ। এর আগে একই ঘটনায় টিএসসিতে সমাবেশ করে ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

আটকের বিষয়ে এর আগে ডিএমপির উপ-কমিশনার ওয়ালিদ হোসেন বলেন, পুলিশের কাজে বাধা দেওয়া এবং পুলিশকে মারধর করার অভিযোগে তাদের আটক করা হয়েছে।

‘ধর্ষণ মামলার’ বাকি আসামিরা হলেন- বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক নাজমুল হাসান সোহাগ, যুগ্ম-আহ্বায়ক (২) মো. সাইফুল ইসলাম, ছাত্র অধিকার পরিষদের সহ-সভাপতি মো. নাজমুল হুদা এবং ঢাবি শিক্ষার্থী আবদুল্লাহ হিল বাকি।

এদিকে, মামলাটি আদালতে গ্রহণ করে আগামী ৭ অক্টোবর মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য করা হয়েছে। সোমবার এক আদেশে এ দিন ধার্য করেন ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরা।

sheikh mujib 2020