advertisement
আপনি পড়ছেন

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাকে মারধর করে আলোচনায় এসেছিলেন বাঁশখালির সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী। এই অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন পেয়েছেন তিনি।

Mostafizur Rahman bashkhali

১৬ জুন, বৃহস্পতিবার সকালে জামিন পান তিনি। এর আগে বিচারিক আদালতে হাজরে হয়ে জামিনের আবেদন করেন তিনি। পরে বাঁশখালীর জ্যেষ্ঠ বিচারক হাকিম মো. সাজ্জাদ হোসেন সাংসদের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। এছাড়াও এই মামলার অন্য দুই আসামী চেয়ারম্যান প্রার্থী তাজুল ইসলাম ও ওলামা লীগ নেতা মাওলানা আখতারও জামিন পেয়েছেন।

জামিনের আগে গত ১২ জুন সাংসদ মোস্তাফিজ হাইকোর্টে আগাম জামিনের আবেদন করেছিলেন। কিন্তু আদালত তার আবেদন নাকচ করে তাকে ২০ জুনের মধ্যে নিম্ন আদালতে আত্মসর্মপন করার নির্দেশ দেন।

গত ৩ জুন বাঁশখালীর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম স্থানীয় থানায় ক্ষমতাসীন দলের সাংসদ মুস্তাফিজের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। তার অভিযোগ ছিল, ইউপি নির্বাচনের সময় ১ জুন সাংসদ ও তার দলীয় লোকজন ইউএনও কার্যালয়ে তাকে মারধর করেন। তবে আগে থেকেই এই নির্বাচন কর্মকর্তার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিলেন সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী।

আপনি আরো পড়তে পারেন

রামকৃষ্ণ মিশনের গুরুকে কুপিয়ে মারার হুমকি

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ফল প্রকাশ

উত্তরার কলেজছাত্র মাদারিপুরে খুন করতে গিয়ে আটক

আজ থেকে বাংলাদেশ-ভারত ট্রানশিপমেন্ট শুরু

শেখ হাসিনা: আল্লাহ ছাড়া কারো কাছে মাথা নত নয়