advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশ এখন লুটের ‘টেক্সটবুক এগজাম্পল’ উল্লেখ করে বিএনপির সংরক্ষিত সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা বলেছেন, গত এক যুগের জানা-অজানা লুটের ফল হচ্ছে দেশে কোটিপতির বাম্পার ফলন।

rumin farhanasরুমিন ফারহানার ফাইল ছবি

রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর জাতীয় সংসদে আনা ধন্যবাদ প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার সময় আজ সোমবার এ কথা বলেন রুমিন। এ সময় ‘লুটের একটা বড় অংশ বিদেশে পাচার করে বেগমপাড়া, সেকেন্ড হোম তৈরি করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

নানা সময়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত সরকারি বিভিন্ন প্রকল্পের কেনাকাটা এবং বিদেশ ভ্রমণে অনিয়মের ফিরিস্তি তুলে ধরেন রুমিন ফারহানা। তিনি বলেন, ২০০৯ সালে দেশে কোটিপতি ছিলেন ২১ হাজার ৪৯২ জন। এই সংখ্যা বেড়ে ৮৭ হাজার ৪৮৮ জনে দাঁড়িয়েছে ২০২০ সালে।

ব্যাংকের এই হিসাবের বাইরে আরো বহু কোটিপতি রয়েছে বলে মন্তব্য করেন রুমিন। তবে সেই সংখ্যাটা এদিন জাতীয় সংসদে উল্লেখ করেননি তিনি।

bd parliamentজাতীয় সংসদ, ফাইল ছবি

বিশ্বে ২৫০ কোটি টাকার অধিক সম্পদশালীদের এক পরিসংখ্যান তুলে ধরে রুমিন ফারহানা বলেন, এতে বাংলাদেশ অতি ধনী বৃদ্ধির হারে প্রথম এবং ধনী বৃদ্ধির হারে তৃতীয়। অথচ বিশ্বে দরিদ্র জনসংখ্যার হারে পঞ্চম স্থানে বাংলাদেশ।

সংসদে দেয়া রাষ্ট্রপতির ভাষণকে ‘কিছু ডেটার সমাহার’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, এতে অবকাঠামোগত উন্নয়নে গুরুত্ব দেয়া হলেও লুটপাটসহ বিভিন্ন বিষয়ে অবহেলা করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে আইনের শাসন, বিচার বিভাগ ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, মানুষের জীবনমান ও ক্রমবর্ধমান বৈষম্য, সর্বজনীন মানবাধিকার ইত্যাদি।

sheikh mujib 2020