advertisement
আপনি পড়ছেন

একদিন আমরা থাকবো না, কিন্তু দেশটা থাকবে। কে ক্ষমতায় থাকবে, কে থাকবে না; সেটা বড় কথা নয়। আসুন আমরা সবাই সন্ত্রাসবিরোধী ঐক্য গড়ে তুলি। সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রধান বেগম খালেদা জিয়া আজ নিজ দলের রাজনৈতিক কার্যালয়ে স্থায়ী কমিটির এক জরুরি সভায় এই আহ্বান জানান।

khaleda zia called for national unity against terrorism

সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলা করতে না পারলে কোনো অর্জনই টিকবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি। গুলশানের নজিরবিহীন জিম্মি সংকটের একদিন পর জরুরি এক সভা ডাকেন খালেদা জিয়া। এর আগে গুলশানের ঘটনা নিয়ে ঘটনার দিনই নিন্দা জানান তিনি।

সন্ত্রাস পৃথিবীর দেশে দেশে রক্ত ঝরাচ্ছে, আমাদের মাতৃভূমি বাংলাদেও লেগেছে সন্ত্রাসের আঘাত, এমন মন্তব্য করে খালেদা জিয়া বলেন, ‘অযৌক্তি-নিষ্ঠুর-হটকারি পথে কোনো কিছুই অর্জিত হতে পারে না। ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলাম নিরাপরাধ মানুষকে হত্যা করা ও সন্ত্রাসের ঘোর বিরোধী।’

খালেদা জিয়া আরো বলেন, ‘গুলশানের ঘটনা আমাদের জাতীয় নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছে। এর ফলে আমাদের বিশ্বাস, স্থিতিশীলতা এবং আন্তর্জাতিক সম্পর্ক দীর্ঘ সংকটের মুখে পড়তে পারে।’

উল্লেখ্য, গুলশানের জিম্মি ঘটনায় মোট ২৮ জন প্রাণ হারান। বাংলাদেশে এর আগে কখনোই এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি। নিহতদের মধ্যে ২০ সন্ত্রাসীদের হাতে মারা যান। বাকি আটজনের ছয়জন সন্ত্রাসী ও দুজন পুলিশের কর্মকর্তা।

আপনি আরো পড়তে পারেন

হাছান মাহমুদ: জঙ্গিরা খালেদা জিয়ার পাশে থাকে

গুলশান হামলায় নিহতরা কারা

ফেসবুকে মিলছে গুলশানে হামলাকারীদের পরিচয়

হামলাকারিদের সঙ্গে আইএসের সম্পৃক্ততা নেই, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দাবি

আজ ও কাল রাষ্ট্রীয় শোক