advertisement
আপনি পড়ছেন

রিকশাতে ডিজিটাল নাম্বার প্লেট সরবরাহের উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন। আজ বুধবার (২৯ জুন) রাজধানীর হোটেল শেরাটনে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ স্মার্ট হাট, ডিজিটাল পশুর হাট’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানান ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

rickshawরিকশায় ডিজিটাল নাম্বার প্লেট

মেয়র বলেন, রাজধানীতে ১০ লাখ রিকশা চলাচলা করে অথচ লাইসেন্স আছে মাত্র ২৮ হাজার। সবাই লাইসেন্স নকল করে চলছে। এ সকল সমস্যা সমাধানে আগামী ৬ মাসের মধ্যে কিউআর কোডসহ ডিজিটাল নাম্বার প্লেট দেওয়া হবে। কিউআর কোড থাকলে তথ্য নকল করার ‍সুযোগ থাকবে না।

তিনি আরও বলেন, প্রথম অবস্থায় ঢাকা শহরে দুই লাখ রিকশায় ডিজিটাল নাম্বার প্লেট করা হবে। এই নাম্বার প্লেট আসবে বাইরে থেকে, তাই নকল করার কারো কোনো সামর্থ্য নেই। পাশাপাশি স্মার্ট সিটি-স্মার্ট বাংলাদেশ-স্মার্ট ডিএনসিসি উপহার দিতে চান তিনি।

এছাড়া ‘স্মার্ট বাংলাদেশ স্মার্ট হাট’ প্রকল্পের আওতায় ঢাকা উত্তর সিটির আওতাধীন ৬টি পশুর হাটের লেনদেন এবার ডিজিটালি হবে। গাবতলী, বসিলা, আফতাবনগর, ভাটারা, কাওলা ও উত্তরা ১৭ নম্বর সেক্টরের পশুর হাটে ডিজিটাল পেমেন্ট বুথ থাকবে।

ওই হাটগুলোতে পেমেন্ট পার্টনার হিসেবে থাকবে মাস্টারকার্ড, ভিসা ও আমেরিকান এক্সপ্রেস। ডিজিটাল পেমেন্ট বুথ স্থাপন ও পরিচালনার জন্য ছয়টি বাণিজ্যিক ব্যাংক থাকবে।

ব্যাংক এশিয়া, ব্র্যাক ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ, দি সিটি ব্যাংক এবং মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস হিসেবে বিকাশ  ও এম-ক্যাশ একযোগে কাজ করবে।