advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 14 মিনিট আগে

আসি আসি করছে গ্রীষ্মকাল। এর মধ্যেই গরমের আবেশ বেশ ভালোমতো টের পাওয়া যাচ্ছে। আর এই গরমের জন্য শরীরে ঘামের পরিমাণও বাড়ছে। ঘাম থেকেই দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। বিরক্তিকর এই দুর্গন্ধ এড়াতে হলে মেনে চলতে হবে কিছু নিয়ম। যার প্রথম শর্ত হচ্ছে- পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা।

preventing body odor

আপনার যদি ঠাণ্ডার সমস্যা না থাকে তাহলে দিনে কয়েকবার গোসল করতে পারেন। গোসলের সময় বালতির পানিতে ফিটকিরি বা কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল ব্যবহার করা যেতে পারে। চাইলে পটাশিয়াম পারম্যাংগানেটও ব্যবহার করা যায়।

শরীরে টক্সিনের আধিক্য ঘামে দুর্গন্ধ সৃষ্টি করে। আন্ডার গার্মেন্টসে ঘাম জমে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়। তাই আন্ডার গার্মেন্টস সবসময় পরিষ্কার রাখতে হবে। ব্যবহারের পর প্রতিদিন এগুলো ধুয়ে দিন।

মোজা পড়ার অভ্যাস থাকলে প্রতিদিন ধোয়ার পর সেগুলো ভালোমতো শুকিয়ে নিন। পরার আগে পায়ে অল্প পাউডার দিয়ে নিতে পারেন। জুতার ভেতরেও পাউডার দিলে সহজে গন্ধ হবে না।

preventing body odor2

রোদ থেকে এসে টমেটোর রস বা এসেনশিয়াল অয়েল শরীরের খোলা অংশে লাগাতে পারেন। এতে ত্বকের পোড়াভাব কমবে আর দুর্গন্ধও দূর হবে। এই সময়ে টুপি, সানগ্লাস, সানস্ক্রিন লোশন ব্যবহার করা খুবই জরুরি। তবে সানস্ক্রিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে অবশ্যই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ মতো লাগাবেন।

গোসলের পর কিছু জায়গায় অবশ্যই বডি মিস্ট লাগাবেন। যেমন- বগল, কোমর, ঘাড় ও কবজিতে। হালকা সুগন্ধ যুক্ত বডি মিস্ট ঘামের দুর্গন্ধ দূর করবে। সুতির কাপড় ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন। এতে ঘাম কম হয় আর হলেও তা শুষে নিয়ে কম দুর্গন্ধ সৃষ্টি করবে। গরমে পর্যাপ্ত তরল খাবার ও পানি পান নিশ্চিত করতে হবে।

মনে রাখবেন, গরমে দুর্গন্ধ দূর করতে পরিষ্কার থাকার কোন বিকল্প নেই।

sheikh mujib 2020