advertisement
আপনি দেখছেন

‘রোগ প্রতিরোধ শক্তি’ মানব দেহের এমন এক ব্যবস্থা, যার ফলে কোনো ধরনের ওষুধ ছাড়াই দেহের রোগ-বালাই সেরে ওঠতে পারে। প্রতিটি মানুষের দেহেই রোগ প্রতিরোধ শক্তি থাকে। এ শক্তি যার ভেতর যত বেশি থাকে সে ততবেশি রোগ-বালাই থেকে মুক্ত থাকে। কখনো-সখনো রোগ-ব্যারাম হয়ে গেলেও ডাক্তারের কাছে যাওয়ার আগেই সুস্থ হয়ে ওঠে।

aware of weather changing

রোগ প্রতিরোধ শক্তি যদি দুর্বল হয়ে পড়ে তাহলে অল্প অসুখেও ডাক্তারের কাছে ছোটাছুটি করা ছাড়া উপায় থাকে না। মহামারি করোনাভাইরাসের আক্রমণে তারাই বেশি মারা গেছেন, যাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ শক্তি দুর্বল ছিলো। তাই আসুন রোগ প্রতিরোধ শক্তি দুর্বল হয়ে যাওয়ার কয়েকটি লক্ষণ জেনে নিই।

১. দুশ্চিন্তার ফলে রক্তে স্বেত কণিকার সংখ্যা কমতে থাকে। এ স্বেত কণিকাগুলোই দেহের রোগ-জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করে থাকে। তাই নিয়মিত যদি কোনো বিষয় নিয়ে মাত্রাতিরিক্ত দুশ্চিন্তায় ভোগেন, এর মানে হলো দিনকে দিন আপনার রোগ প্রতিরোধ শক্তি কমে আসছে।

tips for increasing concentration

২. কয়েকদিন পরপরই রোগ-বালাইয়ে আক্রান্ত হচ্ছেন? সর্দি, কাশি, নিউমোনিয়া, জ্বর আপনার পিছু ছাড়ছে না? এর মানে দাঁড়াচ্ছে আপনার রোগ প্রতিরোধ শক্তি কমে যাচ্ছে। দ্রুত বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

৩. রাতে ঠিক মত ঘুম হচ্ছে, খাওয়া দাওয়াও নিয়ম মেনেই করছেন- তবুও কি সারাক্ষণ অবসাদ বোধ করেন? ক্লান্তিতে দেহ ভেঙে পড়তে চায় বারবার? দুর্বল রোগ প্রতিরোধ শক্তির ইঙ্গিত দিচ্ছে।

৪. ক্ষত সারতে সময় নেওয়াও কিন্তু দুর্বল রোগ প্রতিরোধ শক্তির লক্ষণ। ডায়াবেটিকসহ নানান রোগের বড় লক্ষণও কিন্তু ক্ষতা বা ঘা শুকাতে দেরি হওয়া।

৫. শরীরে বিভিন্ন জয়েন্ট ও পেশিতে ব্যথা হওয়ার পেছনে দুর্বল রোগ প্রতিরোধ শক্তি দায়ী।