advertisement
আপনি পড়ছেন

মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ও তার পরিবারের সদস্যদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে চীন। এতে পেলোসি ও তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে লেনদেন নিষিদ্ধ করার পাশাপাশি ভবিষ্যতে চীনে তাদের সব ধরনের বিনিয়োগে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

nancy pelosi usaন্যান্সি পেলোসি ও তার পরিবারের সদস্যদের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে চীন

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত বিবৃতিতে বলেছে, চীনের গভীর উদ্বেগ ও বিরোধিতাকে অশ্রদ্ধা জানিয়ে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি চীনের তাইওয়ান অঞ্চল সফর করেছেন। এটা চীনের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে জঘন্য নাক গলানোর সমতুল্য। এতে করে চীনের সার্বভৌমত্ব ও ভৌগোলিক অখণ্ডতা ক্ষুণ্ণ হয়েছে, এক চীন নীতির লঙ্ঘন হয়েছে এবং তাইওয়ান প্রণালীর উভয় পাশে শান্তি ও স্থিতিশীলতা হুমকির মুখে পড়েছে। পেলোসির এ উসকানির জবাবে চীন তার ও তার পরিবারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এদিকে চীনের এ নিষেধাজ্ঞার পরিণামে ন্যান্সি পেলোসির স্বামী পল পেলোসি ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা। স্যান ফ্রান্সিসকোভিত্তিক একটি বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠানের মালিক পল গত ১৭ জুন কম্পিউটার চিপ প্রস্তুতকারক কোম্পানি এনভিডিয়ার ১০ লাখ থেকে ৫০ লাখ ডলার মূল্যমানের শেয়ার কিনেছেন বলে জানিয়েছে মার্কেটওয়াচ। এনভিডিয়া ছাড়াও সেমিকন্ডাক্টর খাতের বেশকিছু প্রতিষ্ঠানে পল পেলোসির বিনিয়োগ রয়েছে।

চীনের নিষেধাজ্ঞার কারণে ভবিষ্যতে এ চিপ প্রস্তুতকারক কোম্পানিগুলোতে পল পেলোসির স্বনামে বিনিয়োগের সুযোগ বন্ধ হতে পারে। বিশেষত চীনভিত্তিক ও চীনের সঙ্গে সংযোগ রয়েছে এমন কোম্পানিগুলো পল পেলোসির সম্ভাব্য বিনিয়োগের কারণে বেইজিংয়ের জরিমানা ও সাজার মুখে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন অনেকে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর