advertisement
আপনি পড়ছেন

তাইওয়ানের চারপাশে চীনের নজিরবিহীন চারদিনের সামরিক মহড়া আজ রোববার শেষ হচ্ছে। কিন্তু মহড়াটি শেষ হওয়ার আগে সাগরে চীন-তাইওয়ানের যুদ্ধজাহাজ মুখোমুখি হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এক প্রত্যক্ষদর্শী ঘটনাটিকে ইদুর-বিড়াল খেলার সাথে তুলনা করেছেন। মহড়া শেষ হওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে এ দৃশ্য দেখা যায় সাগরে। খবর টিআরটি ওয়ার্ল্ড।

warships of china taiwan eye each other as drills due to endসাগরে তাইওয়ান-চীন ইদুর-বিড়াল খেলা!

খবরে বলা হচ্ছে, চীন এবং তাইওয়ানের কয়েকটি যুদ্ধজাহাজ আজ রোববার সকালে তাইওয়ান প্রণালীর কাছাকাছি অবস্থান করছিল। এ সময় কিছু চীনা জাহাজ তাইওয়ানের জলসীমা অতিক্রম করেছিল। এই এলাকাটি একটি অনানুষ্ঠানিক বাফার অঞ্চল, যা দুপক্ষকে আলাদা করে।

চীনা বাহিনী জলসীমা অতিক্রম করলে তাইওয়ানের পক্ষ থেকে বাধা দেওয়া হয়। কিন্তু চীন তাতে মাথা ঘামায়নি। দুই পক্ষকেই সংযমী দেখা গেছে। উভয়পক্ষ সুবিধাজনক অবস্থানে ছিল এবং অবশেষে ফিরে যায়। এই দৃশ্যকেই ইদুর-বিড়াল খেলার সাথে তুলনা করেছেন এক প্রত্যক্ষদর্শী।

তাইওয়ান জানিয়েছে, তাদের উপকূলে অ্যান্টি-শিপ মিসাইল এবং প্যাট্রিয়ট সারফেস-টু-এয়ার-মিসাইল সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রয়েছে। তাইওয়ানের প্রধানমন্ত্রী সু সেং চ্যাং বলেন, চীন নিজেদের অহঙ্কারের কারণে আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা ব্যাহত করতে সামরিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

আজ রোববার তাইপেইতে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার সময় সু বেইজিংকে সামরিক শক্তি নমনীয় করার আহ্বান জানান। এ সময় তিনি সাইবার আক্রমণ করে বিভ্রান্তিমূলক প্রচারণার মাধ্যমে তাইওয়ানের জনগণের মনোবল নষ্ট করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে শত্রুর বিরদ্ধে অভিযোগ তোলেন।

তাইওয়ান দ্বীপের চারপাশে ছয়টি অবস্থানকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার চীনের মহড়া শুরু হয়। চীনের সামরিক বাহিনী শনিবার জানায়, স্থল ও সমুদ্রে হামলার সক্ষমতা পরীক্ষা করতেই সামরিক মহড়াটির আয়োজন করা হয়েছে।

মার্কিন হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সফর চীনকে ক্ষুব্ধ করে তোলে। সফরটি চীনকে এতটাই ক্ষুব্ধ করে যে, দেশটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণও করে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই মহড়াকে একটি বাড়াবাড়ি বলে অভিহিত করেছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর