advertisement
আপনি পড়ছেন

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকসন্ত্রাস থামছেই না। সবশেষ দেশটির ওহাইও স্টেটের বাটলার শহরে এলোপাতাড়ি গুলিতে চারজন নিহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় শুক্রবার দুপুরে গোলাগুলির এই ঘটনা ঘটে। হামলাকারীকে ধরতে অভিযানে নেমেছে শহরের পুলিশ। আজ রোববার (৭ আগস্ট) ইউএস টুডে ও সিএনএনসহ অন্যান্য মার্কিন গণমাধ্যম এ খবর জানায়।

shootings 4 dead ohioঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ

বাটলার শহরের পুলিশ প্রধান জন পোর্টার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ডেটনের কাছে বাটলার টাউনশিপের একাধিক স্থানে চারজনকে গুলি করে হত্যা করেছে একজন ব্যক্তি। এজন্য স্টিফেন মার্লো নামে এক ব্যক্তিকে সন্দেহ করা হচ্ছে।

পোর্টার বলেন, সবশেষ গুলির ঘটনাস্থল থেকে মার্লোকে দ্রুত একটি ফোর্ড এজ গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যেতে দেখা যায়।  ওই ব্যক্তি সম্ভবত এখনও সশস্ত্র ও বিপজ্জনক। এফবিআই জানিয়েছে, ৩৯ বছরের মার্লোর কেনটাকি, ইন্ডিয়ানাপলিস ও শিকাগোতে যাতায়াত রয়েছে। এসব শহরের যে কোনো একটিতে পালিয়ে থাকতে পারে সে।

ওহাইও অঙ্গরাজ্যের ছোট্ট শহর বাটলারে আট হাজার লোকের বসবাস। শহরটিতে এমন গুলির ঘটনা এই প্রথম বলে জানিয়েছে পুলিশ। মানুষের আতঙ্ক দূর করতে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক সহিংসতা ব্যাপকভাবে বেড়েছে। গান ভায়োলেন্স আর্কাইভের হিসেবে দেশটিতে বন্দুক সহিংসতায় প্রতি বছর প্রায় ৪০ হাজার মানুষের প্রাণহানি ঘটে। সম্প্রতি বন্দুক সহিংসতার সবচেয়ে ভয়ঙ্কর ঘটনাটি ঘটে গত মে মাসে। গত ২৪ মে টেক্সাসের উভালদের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বন্দুক হামলায় ১৯ শিশু শিক্ষার্থী ও দুই শিক্ষক প্রাণ হারান।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অস্ত্র আইন কঠোর করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন। এরইমধ্যে তারা পার্লামেন্টের নিন্মকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভে একটি বিল পাস করেছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর