advertisement
আপনি পড়ছেন

ফ্রান্স বলেছে, অবরোধ প্রত্যাহার ছাড়া গাজায় স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠা সম্ভব না। জাতিসংঘ ও কাতারের সহযোগিতা এবং মিশরের মধ্যস্থতায় ইসরায়েল-গাজার মধ্যে কার্যকর হওয়া যুদ্ধবিরতিকে স্বাগত জানিয়ে ফ্রান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এমন মন্তব্য করেছে। খবর আনাদোলু।

a view of destruction after israeli attackইসরায়েলি হামলায় গুড়িয়ে যাওয়া একটি বাড়ি

প্যারিস তার ইউরোপীয় ও আঞ্চলিক অংশীদারদের সাথে একটি ন্যায্য এবং স্থায়ী শান্তির লক্ষ্যে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে এক বিবৃতিতে বলেছে, ইসরায়েলের জন্য বিশ্বাসযোগ্য নিরাপত্তা গ্যারান্টিসহ অবরোধ তুলে নেওয়া ছাড়া গাজায় স্থায়ী স্থিতিশীলতা আসবে না।

সব পক্ষকে এ আবেদনের প্রতি সম্মান জানানোর আহ্বান জানিয়ে ফ্রান্স দাবি করেছে, এর ফলে আঞ্চলিক উত্তেজনা এবং আরও বেশি বেসামরিক ক্ষতি প্রতিরোধ করা যাবে।

a kid reacts inside a damage buildingহামলায় ক্ষতিগ্রস্ত একটি বাড়ির মধ্যে বসে আছে আহত এক ফিলিস্তিনি বালক

ইসরায়েলি হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত গাজা পরিবারগুলোর প্রতি সমবেদনা জানিয়ে ফ্রান্স গাজায় প্রবেশের রুটগুলো দীর্ঘমেয়াদে উন্মুক্ত রাখা বিশেষকরে মানবিক সহায়তা ও জ্বালানি প্রবেশ এবং আহত ও অসুস্থ ব্যক্তিদের দ্রুত স্থানান্তরের জন্য অনুমতি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডজুড়ে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার পর ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী ইসলামিক জিহাদের ‘আক্রমণের আসন্ন হুমকি’ উল্লেখ করে ইসরায়েলি যুদ্ধবিমানগুলো গত সপ্তাহে গাজায় বিমান হামলা শুরু করে।

ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, বিমান হামলায় ৫ বছর বয়সী একটি মেয়েসহ কমপক্ষে ৪৫ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন এবং ৩৬০ জনেরও বেশি আহত হয়েছেন। জাতিসংঘের মতে, এ হামলায় গাজার কয়েকশ পরিবারের আবাসন ধ্বংস হয়ে গেছে। বেশ কিছু বাড়ি একেবারে ধুলোয় মিশে গেছে আর অনেকগুলো ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর