advertisement
আপনি পড়ছেন

মস্কোতে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত ঝাং হানহুই যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করে বলেছেন, জো বাইডেনের দেশই ইউক্রেন যুদ্ধের ‘প্রধান উসকানিদাতা’। ওয়াশিংটন রাশিয়াকে চূর্ণ-বিচূর্ণ করে ফেলতে চায়, এ লক্ষ্যেই তারা যুদ্ধের সূচনা করেছে। খবর আল জাজিরা।

ambassador zhang hanhuiচীনা রাষ্ট্রদূত ঝাং হানহুই

ঝাং হানহুই বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বারবার ন্যাটো প্রতিরক্ষা জোটের সম্প্রসারণ এবং ইউক্রেনকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে যুক্ত করতে চাওয়ার মাধ্যমে রাশিয়াকে কোণঠাসা করে ফেলতে চায়।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা তাসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ঝাং বলেন, ইউক্রেনীয় সংকটের সূচনা করেছে ওয়াশিংটন। আবার এর প্রধান প্ররোচনাদাতাও তারাই। ইউক্রেন যুদ্ধকে কেন্দ্র করে তারা যখন রাশিয়ার ওপর ব্যাপকহারে নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে, তখন ইউক্রেনে অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম সরবরাহ অব্যাহত রেখেছে। কারণ তাদের চূড়ান্ত লক্ষ্য হল রাশিয়াকে দীর্ঘস্থায়ী যুদ্ধ এবং নিষেধাজ্ঞার কবলে ফেলে নিঃশেষ এবং চূর্ণ-বিচূর্ণ করা।

russian attack in ukraine 3ইউক্রেনে ছয় মাস ধরে অভিযান চালাচ্ছে রাশিয়া

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা শুরু করার পর এ পর্যন্ত হাজার হাজার বেসামরিক মানুষ মারা গেছে। ইউক্রেনের বড় বড় অনেকগুলো শহর ধ্বংস হয়ে গেছে। সেইসাথে জনসংখ্যার এক চতুর্থাংশেরও বেশি লোক বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে।

সাক্ষাৎকারে ঝাং আরো বলেন, চীন-রাশিয়ান সম্পর্ক ইতিহাসের সর্বোত্তম সময়ে প্রবেশ করেছে। দেশ দুটির পারস্পরিক আস্থা ও মিথস্ক্রিয়া সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছেছে।

গত সপ্তাহে মার্কিন হাউসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের প্রতিবাদ করে ঝাং বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ঠাণ্ডা যুদ্ধের মানসিকতা পুনরুজ্জীবিত করার জন্য ইউক্রেন ও তাইওয়ানে একই কৌশল প্রয়োগ করার চেষ্টা করছে। এভাবে তারা চীন ও রাশিয়াকে উস্কে দিতে চায়।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর