advertisement
আপনি পড়ছেন

ফিলিস্তিনের গাজায় গত সপ্তাহে ইসরায়েলি হামলায় আহত হওয়া আরও এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার আনাস ইনশাছি নামের ওই যুবক মারা যান। তার আগের দিন বৃহস্পতিবার মারা যান ১১ বছরের এক কিশোরী। এ নিয়ে গাজায় তিনদিনের ইসরায়েলি নৃশংসতায় ৪৯ জনের প্রাণ গেল। এর মধ্যে ১৭ জনই শিশু। খবর আল জাজিরা।

gaza attack 1গাজায় ইসরায়েলি হামলা, ফাইল ছবি

অবরুদ্ধ গাজায় গত ৫ আগস্ট উপর্যুপরি বিমান হামলা শুরু করে ইসরায়েলি সেনারা। ওইদিন ইসলামি জিহাদ গোষ্ঠীর এক নেতাকে আটক করে নিয়ে যায় ইসরায়েলি বাহিনী। প্রতিবাদে ইসরায়েলের দিকে রকেট ছুড়ে মারলে পাল্টা বিমান হামলা শুরু করে ইসরায়েলি সেনারা।

৫ আগস্ট শুক্রবার থেকে রোববার পর্যন্ত তিনদিনে ইসরায়েলি বিমান হামলায় গাজায় অন্তত ৪৯ জন নিহত হলেন। আহতাবস্থায় মারা গেলেন দুজন। অন্যদিকে ইসলামি জিহাদ কয়েকশ’ রকেট নিক্ষেপ করলেও তাতে ইসরায়েলের কেউ হতাহত হয়নি। পরে মিশরের মধ্যস্থতায় দুই পক্ষ যুদ্ধবিরতিতে আসে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, ওই সময় হামলায় আহত হয়ে গতকাল শুক্রবার মারা গেলেন ২২ বছরের আনাস। তার লাশ কালো কফিনে ও সাদা পতাকায় মুড়িয়ে শোক মিছিল করে ইসলামি জিহাদ। ওই তিনদিনে নিহতদের বেশির ভাগই গাজার বেসামরিক বাসিন্দা। নিহতদের মধ্যে ইসলামি জিহাদের ১২ সদস্য রয়েছেন।

গাজায় হতাহতের পরিসংখ্যান রাখা ডিফেন্স ফর চিলড্রেন ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি বেসরকারি সংস্থা জানায়, ২০০৮ সালে থেকে এ পর্যন্ত চারবার গাজায় বড় রকমের হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। এতে এ পর্যন্ত ৪ হাজার ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছেন। এর মধ্যে বেশির ভাগই শিশু। সংস্থাটির হিসেবে, অন্তত ২ হাজার ২০০ শিশু গত কয়েক বছরে প্রাণ হারিয়েছে ইসরায়েলি হামলায়।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর