advertisement
আপনি পড়ছেন

সারাদিন অক্লান্ত পরিশ্রমের পর পুলিশ সদস্যদের অত্যন্ত নিম্নমানের খাবার দেওয়া হচ্ছে- এমন অভিযোগ ওঠেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশ সরকারের বিরুদ্ধে। সে খাবার কুকুরের খাওয়ারও অযোগ্য বলে এক ভিডিওতে দাবি করেছেন এক পুলিশকর্মী। ওই ভিডিও ইতোমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে। তবে এর একদিন পরই তাকে বাধ্যতামূলক লম্বা ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। একই সাথে তার বিরুদ্ধে বেশকিছু অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

monoj kumarখাবারের মান নিয়ে আপত্তি জানাচ্ছেন মনোজ কুমার

ওই ভিডিওটি দেখা গেছে, একটি থালায় কয়েকটি রুটি, সামান্য ভাত ও এক বাটি ডাল নিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছেন ফিরোজাবাদের পুলিশ মেসের এক পুলিশকর্মী। মনোজ কুমার নামে ওই কনস্টেবল কেঁদে কেঁদে বলছেন, পানির মতো পাতলা ডাল এবং কাঁচা রুটি খেতে দেওয়া হয় তাদের। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বারবার অভিযোগ জানিয়েও কোনো কাজ হয়নি। বরং চাকরি ‘খেয়ে দেওয়ার হুমকি পেয়েছেন বেশ কয়েকবার।

সিনিয়র সুপারিন্টেন্ডেন্ট অফ পুলিশের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ জানিয়ে মনোজ বলেন, ১২ ঘণ্টা ডিউটি করে আসার পর আমাদের এসব খাবার দেওয়া হয়। কোনো কুকুরকে এই খাবার দেওয়া হলে সে-ও এগুলো খাবে না। আমরা মানুষ হয়ে কী করে এমন খাবার খাব? আর পেটে যদি খাবারই না থাকে, তাহলে কাজ করব কী করে?

up policeউত্তর প্রদেশ পুলিশ

মনোজ দাবি করেন, পুরো ব্যাপারটা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের একটা দুর্নীতি। তারাই ইচ্ছা করে এমন নিম্নমানের খাবার দিচ্ছে।

তিনি জানান, খাবারের মান নিয়ে এর আগে তিনি মেস ম্যানেজারের কাছে অভিযোগ করেছিলেন। কিন্তু তিনি প্রতিকারের কোনো ব্যবস্থা না করে বরং তার চাকরি কেড়ে নেওয়ার হুমকি দেন। এরপরই ভিডিওর মাধ্যমে নিজের অভিযোগ জানাবেন বলে ঠিক করেন মনোজ। প্রতিবাদ জানানোর পরই তাকে সরিয়ে নিয়ে যান অন্য পুলিশকর্মীরা।

এ ব্যাপারে আগ্রা জোনের অতিরিক্ত ডিরেক্টর জেনারেল অজয় আনন্দ বলেন, ফিরোজাবাদের রিজার্ভ পুলিশ লাইনের মেসে খাবারের মান নিয়ে পুলিশ সদস্যের উত্থাপিত অভিযোগগুলো খতিয়ে দেখার জন্য তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একজন সার্কেল অফিসারকে এই তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তিনি ঘটনার তদন্ত করে এই সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট জমা দেবেন।

এদিকে ভিডিও প্রচারিত হওয়ার পরদিন মনোজ কুমার গণমাধ্যমকে জানান, ওই ভিডিও করার পর তিনি সিনিয়র কর্মকর্তাদের রোষানলে পড়েছেন। তাকে এনে লকআপে রাখা হয়। পরে তাকে জোরপূর্বক লম্বা ছুটিতে পাঠানো হয়। এ সময় মনোজ তার চাকরির ভবিষ্যত নিয়েও শঙ্কা প্রকাশ করেন।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর