advertisement
আপনি পড়ছেন

ইউক্রেনের বিরোধী দলীয় নেতা ভিক্তর মেদভেদচুককে অনেকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বন্ধু মনে করেন। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ আক্রমণ শুরুর পরপর ইউক্রেনের নিরাপত্তা বাহিনী তাকে গ্রেপ্তার করে। এপ্রিল মাসে এক ভিডিও বার্তায় মেদভেদচুক তার মুক্তির বিনিময়ে মারিওপোলে অবরুদ্ধ ইউক্রেনীয় সৈন্যদের ছেড়ে দিতে রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানান। শেষ পর্যন্ত তা-ই হয়েছে। ২০০ সৈন্যর বিনিময়ে মুক্তি পেলেন পুতিনের এই বন্ধু। খবর গার্ডিয়ান।

victor medvedchukরাশিয়ার হাতে বন্দি ২০০ ইউক্রেনীয় সেনার মুক্তির বিনিময়ে মেদভেদচুককে ছেড়েছে কিয়েভ

গত বুধবার রাতে তুরস্কের মধ্যস্থতায় রাশিয়া ও ইউক্রেনের বন্দিবিনিময় কর্মসূচির আওতায় কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন ভিক্তর মেদভেদচুক। ইউক্রেনের শীর্ষ ধনী মেদভেদচুক ২০১৪ ও ২০১৮ সালে সেদেশের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের অন্যতম ফ্রন্টরানার ছিলেন। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনীয় গোয়েন্দা সংস্থা এসবিইউ তাকে নিজ বাসভবন থেকে আটক করে।

সোমবার রাতে ইউক্রেনের পক্ষ থেকে ৫৬ জনকে হস্তান্তর করা হয়েছে। বিনিময়ে রাশিয়া হস্তান্তর করেছে ২১৫ জনকে। এর মধ্যে ইউক্রেনের আজভ রেজিমেন্টের শীর্ষ কমান্ডার ছাড়াও রয়েছেন রুশ বাহিনীর হাতে আটক হওয়া ১০ বিদেশি যোদ্ধা।

কমান্ডার-ইন-চিফ ডেনিস প্রোকোপেঙ্কোসহ আজভ রেজিমেন্টের ৫ কমান্ডারের বিনিময়ে রাশিয়ার ৫৫ জন সেনা কর্মকর্তা ও সদস্যকে মুক্তি দিয়েছে ইউক্রেন। অন্যদিকে ভিক্তর মেদভেদচুকের বিনিময়ে ইউক্রেনের ২০০ সৈন্যকে মুক্তি দিয়েছে রাশিয়া। এছাড়া সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের অনুরোধে ডনবাস থেকে আটক ১০ বিদেশি যোদ্ধাকে হস্তান্তর করেছে রাশিয়া।

আজভ রেজিমেন্টের ৫ কমান্ডারের বিনিময়ে মুক্তিপ্রাপ্ত রুশ সেনাবাহিনীর সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন একজন লেফটেন্যান্ট কর্নেল ও একজন মেজর, ছয়জন জুনিয়র অফিসার, চারজন ওয়ারেন্ট অফিসার, ৪০ জন সৈনিক, দোনেৎস্ক পিপলস মিলিশিয়ার দুই সদস্য ও লুহানস্ক পিপলস মিলিশিয়ার এ সদস্য।

বন্দিবিনিময় চুক্তির শর্ত অনুযায়ী, মুক্তিপ্রাপ্ত পাঁচ আজভ কমান্ডার যুদ্ধ শেষ হওয়া পর্যন্ত তুরস্কে অবস্থান করবেন। একইভাবে, সৌদি মধ্যস্থতায় মুক্তিপ্রাপ্ত ১০ বিদেশিও ইউক্রেনে যুদ্ধ শেষ হওয়া পর্যন্ত সৌদি আরবে অবস্থান করবেন। এছাড়া মুক্তিপ্রাপ্ত ইউক্রেনীয় সৈন্যরা নিজ দেশে ফিরে গেছেন।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, মুক্তিপ্রাপ্ত রুশ সৈন্যদের ডাক্তারি পরীক্ষা ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসার জন্য সশস্ত্র বাহিনীর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মেদভেদচুকের অবস্থান সম্পর্কে এত কিছু বলা হয়নি। তবে মেদভেদচুকের ওয়েবসাইটে তিনি বন্দিবিনিময়ের আওতায় মুক্তির পর থেকে রাশিয়ায় স্বেচ্ছা নির্বাসনে রয়েছেন বলে জানানো হয়েছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর