আপনি পড়ছেন

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান আজ বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলবেন। গতকাল তুর্কি প্রেসিডেন্ট কার্যালয় ও ক্রেমলিনের মধ্যে এই টেলিসংলাপের সময় নির্ধারণ হয়েছে। রাশিয়ার সঙ্গে পশ্চিমা দেশগুলোর রাজনৈতিক ও সামরিক উত্তেজনা বৃদ্ধির মধ্যে তুর্কি প্রেসিডেন্টের এ ফোনকলের উদ্যোগ উত্তেজনা নিরসনের জোর প্রয়াস হিসেবে দেখা হচ্ছে। খবর আনাদোলু, ইজভেস্তিয়া। 

putin erdoganটেলিফোনে কথা বলবেন এরদোয়ান ও পুতিন

এর আগে বুধবার দুপুরে রাশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের সেক্রেটারি নিকোলাই পেট্রুশভ মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের একজন শীর্ষ কর্মকর্তার সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন। ‘অত্যন্ত নিরাপদ ও সুরক্ষিত লাইনে’ অনুষ্ঠিত এ ফোনালাপ সম্পর্কে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে কিছু জানানো হয়নি। পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার ইস্যুতে ওয়াশিংটন ও মস্কোর কর্মকর্তাদের পাল্টাপাল্টি হুমকির মধ্যে এ ফোনালাপ অনুষ্ঠিত হলো।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান বলেছেন, তিনি ইউক্রেন সংকট নিরসনের সম্ভাবনা নিয়ে রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কথা বলতে চান। এছাড়া শস্য রপ্তানি, বন্দী বিনিময় ও অন্যান্য ইস্যুতেও আলোচনা হবে। শস্য রপ্তানির সুবিধার্থে তুরস্ক ও জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় স্বাক্ষরিত চুক্তির মাধ্যমে কৃষ্ণ সাগরে নৌ চলাচলের যে নিরাপদ করিডর গড়ে তোলা হয়েছে, সে পথ দিয়ে যাওয়া চালান মূলতঃ দরিদ্র দেশগুলোতে পৌঁছবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

তিনি আরও বলেন, তুরস্কের সিনোপ প্রদেশে একটি পারমাণবিক বিদ্যুতকেন্দ্র প্রতিষ্ঠার বিষয়ে রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা অব্যাহত থাকবে। এছাড়া আসন্ন শীতে রাশিয়া থেকে তুরস্কে গ্যাস সরবরাহ অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

এর আগে বুধবার ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন এরদোয়ান। এ সময় উভয় নেতা রাশিয়া-ইউক্রেন বন্দী বিনিময় মসৃণভাবে সম্পন্ন হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেন। ইউক্রেনের রুশ নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে গণভোট, জাপরোঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের নিরাপত্তা ও অন্যান্য ইস্যুতেও তাদের মধ্যে কথা হয়েছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর