আপনি পড়ছেন

বিভিন্ন সময়ই অভিযোগে উঠেছে ভারতকে বিশেষ সুবিধা দিচ্ছে আইসিসি। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও পাকিস্তান ও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে খেলায় পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ উঠেছে আম্পায়ার তথা আইসিসির বিরুদ্ধে। তবে ভারত দাবি করছে, সুবিধা তো পাওয়া যাচ্ছেই না, বরং বাণিজ্যের কারণে তাদের খাটিয়ে মারছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

icc and bcciআইসিসি ও বিসিসিআই

অন্যরা কিছু রেখে ঢেকে কথা বললেও বুমবুম খ্যাত পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদি সরাসরি অভিযোগ করেন, ভারতকে আইসিসি অন্যায্য সুবিধা দিচ্ছে। সেই অভিযোগের জবাবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নতুন সভাপতি রজার বিনি বলেছিলেন, ভারত ক্রিকেটবিশ্বের বড় শক্তি হলেও বাকি দেশগুলোর মতোই তাদের দেখে থাকে আইসিসি।

গতকাল শনিবার এ বিষয়ে দলের হয়ে ব্যাট ধরেন রবিচন্দ্রন অশ্বিনও। তিনি বলেন, তারা তো বিশেষ সুবিধা পাচ্ছেনই না। বরং এ বিশ্বকাপের সময়সূচির কারণে বাকি দলগুলো থেকে বেশি পরিশ্রম হচ্ছে টিম ইন্ডিয়ার। এক শহর হতে আরেক শহরে দৌড়াদৌড়ি করতে করতে রোহিতদের জুতো ক্ষয় হয়ে যাচ্ছে।

indian team 2খাটিয়ে মারা হচ্ছে টিম ইন্ডিয়াকে!

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আয়োজক দেশ অস্ট্রেলিয়া। রোহিত শর্মারা দাবি করছে, অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছানোর পর থেকেই দৌড়াদৌড়ির মধ্যেই আছেন তারা। অনেক দল যেখানে একই মাঠে পর পর একাধিক ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে, সেখানে ভারতকে প্রতি ম্যাচেই ছুটতে হচ্ছে অন্য কোথাও। এক সাথে দুই ম্যাচ তাদের এক মাঠে খেলার সুযোগ হচ্ছে না।

ধারণা করা হচ্ছে, বাণিজ্যিক কারণেই আইসিসি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কারণ অস্ট্রেলিয়ার প্রায় সব বড় শহরেই উল্লেখযোগ্য হারে ভারতীয়দের উপস্থিতি রয়েছে। ফলে বিভিন্ন জায়গায় ম্যাচের আয়োজন হলে সব জায়গার দর্শকরাও যেমন ভারতের খেলা দেখতে পারবেন, তেমনি আইসিসির আয়ও বাড়বে। এ কারণে প্রতি ম্যাচেই ভারতকে ছুটতে হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার একেক প্রান্তে। প্রথম ম্যাচ মেলবোর্নে খেলার পর যেতে হয়েছে সিডনিতে। সেখান থেকে পার্থ, অ্যাডিলেড হয়ে আজ রোববারের ম্যাচে আবারো মেলবোর্ন।

গতকাল শনিবার বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করা হলে অশ্বিন বলেন, অনেক দল একই শহরে একটু বেশি সময় থাকার সুযোগ পেয়েছে। ভারতের সেই সুযোগ ছিল না। আসলে পুরো অস্ট্রেলিয়ায় অনেক ভারতীয় রয়েছেন। প্রত্যেকেই ভারতের খেলা দেখতে চান। ধারণা করি, এ কারণেই এভাবে আয়োজন করা হয়েছে।

এর আগেই আফ্রিদির বক্তব্যের প্রতিবাদের বিসিসিআইয়ের নতুন সভাপতি রজার বিনি বলেছেন, আইসিসি ভারতকে জামাইআদর করছে, এ রকম ভাবার কোনও কারণ নেই। তারা আমাদের কোনও রকম বাড়তি সুবিধা দিচ্ছে না। সব দলকেই আইসিসি সমান চোখে দেখে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর