আপনি পড়ছেন

জাতিসংঘ আফগানিস্তানে লিঙ্গভিত্তিক সহিংসতা বন্ধ করার আহ্বান জানানোর পর বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দাবি করছে, নারীদের প্রতি সহিংসতা ও ধর্ষণের ঘটনা গণতন্ত্রের দাবিদার পশ্চিমা দেশগুলোতেই সবচেয়ে বেশি রেকর্ড করা হয়েছে। খবর খামা নিউজ।

afghan foreign ministry 1আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

ইসলামি আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আবদুল কাহার বালখি নারী নির্যাতনের দায়ে পশ্চিমা বিশ্বের দেশগুলোকে অভিযুক্ত করে বলেছেন, আমেরিকায় প্রতি ৩ জন নারীর ১ জন সহিংসতা ও ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। পশ্চিমা গণতন্ত্রের দাবিদার অন্যান্য দেশেও সমস্যাটি প্রকট আকার ধারণ করেছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

জাতিসংঘের দেওয়া বিবৃতি প্রত্যাখ্যান করে বালখি বলেন, নারীদের সব রকমের সুরক্ষার ব্যবস্থা দিতে ইসলামি সরকার বাধ্য। এর বিপরীতে পশ্চিমারা নারীদের খোলামেলা পোশাকে দেখতে চায়। আর সে কারণে তাদের চেষ্টা থাকে সব দেশের নারীরা যেন ইউরোপীয় স্টাইলে নগ্নতায় মেতে ওঠে।

afgan women 1আফগান নারী

এর আগে জাতিসংঘের এক বিবৃতিতে বলা হয়, আফগানিস্তানে নারীদের অধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। বিশ্বে নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার মাত্রা আফগানিস্তানেই সবচেয়ে বেশি। নারী ও মেয়েদের ওপর দেশটির বর্তমান সরকার কঠোর নিয়ম-নীতি আরোপ করেছে। আফগান নারীরা লিঙ্গভিত্তিক সহিংসতা থেকে বেঁচে থাকা ব্যক্তিদের জন্য সমন্বিত, ব্যাপক ও মানসম্পন্ন পরিষেবাগুলোতে অ্যাক্সেসের ক্ষেত্রে একটি উল্লেখযোগ্য অবনতির সম্মুখীন হয়ে থাকে। যদিও সেই পরিষেবাগুলোর চাহিদা আগের যে কোনও সময়ের চেয়ে অনেক বেড়েছে।

আফগানিস্তানের উদ্দেশ্যে জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ প্রতিনিধি রোজা ওতুনবায়েভা বলেছেন, আফগান নারীদের মৌলিক অধিকারগুলোকে সুরক্ষিত করতে হবে এবং সব ধরনের সহিংসতা থেকে মুক্ত একটি সক্ষম পরিবেশের জন্য দৃঢ় পদক্ষেপ নেওয়া দরকার।

গত বৃহস্পতিবার প্রকাশিত ওই বিবৃতিতে জাতিসংঘ জানায়, নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা এবং নারীর অধিকারের ব্যাপক অবনতি বন্ধে আফগান সরকার অবিলম্বে পদক্ষেপ নেবে বলে তাদের বিশ্বাস।

তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, ইসলামি শরিয়াহ মেনে চলা বর্তমান প্রশাসনকে সবার চোখে ভিলেন হিসেবে দেখানোর অব্যাহত প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে পশ্চিমা মিডিয়ায় এসব অভিযোগ তোলা হচ্ছে। এ অবস্থায় আফগান মুখপাত্র আবদুল কাহার বালখি জাতিসংঘের এ দাবিকে ‘ভুল’ আখ্যা দিয়ে নারী নির্যাতনের দায়ে উল্টো উন্নত পশ্চিমা দেশগুলোকে অভিযুক্ত করেছেন।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর