আপনি পড়ছেন

যশোরের মণিরামপুরে কাভার্ডভ্যান চাপায় বাবা-ছেলেসহ পাঁচ জন নিহত হয়েছে। শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর সকাল ৭টার দিকে উপজেলার বেগারীতলায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- মণিরামপুরের টুনিয়াঘরা গ্রামের আহম্মদ আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান (৫৫) ও তার ছেলে তাওসী (৭), বাবুর ছেলে তৌহিদুর রহমান (৩৫), মফিজ মীরের ছেলে মীর সামসুল (৫০) ও জয়পুর গ্রামের আব্দুল মমিনের ছেলে জিয়ারুল (৩৫)। মণিরামপুর থানার ওসি শেখ মো. মনিরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

covered van in hotel jashoreযশোরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হোটেলে কাভার্ডভ্যান, নিহত ৫

এ বিষয়ে মণিরামপুর ফায়ার স্টেশনের অফিসার প্রণব কুমার বিশ্বাস জানান, সাড়ে ৭টার দিকে এক ব্যক্তি নাস্তা করার জন্য তার ছেলেকে নিয়ে হোটেলে ঢুকতে সড়কে ওঠেন। এ সময় দ্রুতগতিতে আসা সাতক্ষীরাগামী একটি কাভার্ডভ্যান তাদের চাপা দিয়ে সড়কের পাশের হোটেলে ঢুকে পড়ে। সেখানে আরও তিন জনকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে। 

স্থানীয়রা জানান, দ্রুতগতির কাভার্ডভ্যানটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে একটি হোটেলে ঢুকে পড়লে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পরপরই যশোর-মনিরামপুর সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

যশোর পুলিশের মুখপত্র জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি রুপম কুমার সরকার বলেন, সকালে একটি কাভার্ডভ্যান (রেজি. ঢাকা মেট্রো-ন-২০-১৭৫১) দ্রুত গতিতে তালেবের খাবারের হোটেলে ঢুকে যায়। ঘটনার পরপরই কাভার্ড ভ্যানের চালাক পালিয়ে যায়।