আপনি পড়ছেন

রাশিয়ার নাগরিক হিসেবে শপথ নিয়েছেন মার্কিন হুইসেলব্লোয়ার এডওয়ার্ড স্নোডেন। শুক্রবার তার আইনজীবী আনাতোলি কুচেরেনা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন শপথ গ্রহণের পর রাশিয়ার পাসপোর্টও পেয়েছেন স্নোডেন। এর আগে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন গত ২৬ সেপ্টেম্বর স্নোডেনকে রাশিয়ার নাগরিকত্ব দেওয়ার ডিক্রিতে স্বাক্ষর করেন। খবর আনাদোলু।

edward snowden 1এডওয়ার্ড স্নোডেন

২০১৩ সালে দেশে-বিদেশে মার্কিন গোপন নজরদারির তথ্য ফাঁস করে দুনিয়াজুড়ে আলোড়ন তুলেন স্নোডেন। মার্কিন ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ এই ফাঁসের ঘটনায় প্রকাশ্যে আসে, নিজের দেশের নাগরিকদের ওপর ওয়াশিংটন কিভাবে গোয়েন্দাগিরি চালাচ্ছিল। এমনকি ইউরোপীয় বিভিন্ন অফিস ও তৎকালীন জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলসহ বিভিন্ন দেশের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের ফোনে আড়ি পেতে এনএসএ তথ্য সংগ্রহ করেছে বলেও দাবি করেন স্নোডেন।

স্নোডেন ২০০৯ সালে এনএসএতে প্রাইভেট কন্ট্রাক্টর হিসেবে যোগ দেন। এর আগে তিনি তিন বছর যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএতে কাজ করেন।

ব্রিটিশ সংবাদপত্র দ্য গার্ডিয়ানে তার এসব তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে পুরো দুনিয়ায় তোলপাড় পড়ে যায়। তবে এর পর থেকেই স্নোডেন পালিয়ে বেড়াতে থাকেন বিভিন্ন দেশে। কারণ তার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র যে সব অভিযোগ এনেছে, তাতে তার অন্তত ৩০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ ঘোষিতদের তালিকায় থাকা স্নোডেন ২০১৩ সাল থেকে রাশিয়ায় রাজনৈতিক আশ্রয়ে ছিলেন। ২০১৭ সালে পুতিন মন্তব্য করেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রের গোপন নীতি ফাঁস করা ছিল স্নোডেনের ভুল। তবে তিনি বিশ্বাসঘাতক নন। ২০২০ সালের অক্টোবরে তাকে দেশটিতে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দেয় পুতিন প্রশাসন। গত সেপ্টেম্বরে স্নোডেনকে নাগরিকত্ব দেওয়ার ঘোষণা দেয় ক্রেমলিন।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা তাসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে স্নোডেনের আইনজীবী আনাতোলি কুচেরেনা জানান, স্নোডেনের স্ত্রী লিন্ডসে মিলসও রাশিয়ার নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করেছেন। তিনি ২০১৭ সালে স্নোডেনকে বিয়ে করেন এবং ২০২০ সালে তাদের একটি ছেলে জন্ম নেয়।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর