আপনি পড়ছেন

ইরানে পুলিশি হেফাজতে মাহসা আমিনির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি ব্যাপক বিক্ষোভ শুরুর জেরে এ পর্যন্ত চারজনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে দেশটি। কয়েক মাস ধরে চলা বিক্ষোভের মধ্যে গত দুইদিনে তিন নারী সাংবাদিককে আটক করা হয়েছে। এদিকে, এসব ঘটনার প্রেক্ষিতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন- ইইউ মন্ত্রীরা সোমবার ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার একটি নতুন প্যাকেজের ব্যাপারে একমত হয়েছেন বলে জানিয়েছে সুইডিশ ইইউ প্রেসিডেন্সি। খবর এনডিটিভি ও আল জাজিরার।

iran 6ফাইল ছবি

সোমবার দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর বরাতে এনডিটিভি এ তথ্য জানিয়েছে। আটক হওয়া তিন নারী সাংবাদিক হলেন- মেলিকা হাশেমি, সাইদেহ সাফিয়ে ও মেহেরনৌশ জারেই।

সাইদেহ সাফিয়ে লেখক ও ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক হিসেবে কাজ করেন। মেহেরনৌশ জারেই বেশ কিছু সংস্কারবাদী লেখা লিখে আলোচিত হয়েছেন। আর মেলিকা হাশেমি সহর নামের একটি সংবাদমাধ্যমে যুক্ত রয়েছেন।

প্রেসিডেন্সি টুইট বার্তায় বলেছে, মন্ত্রীরা ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার একটি নতুন প্যাকেজ গ্রহণ করতে সম্মত হয়েছেন। বিশেষ করে ইরানে আন্দোলনকে কেন্দ্র করে যারা দমন-পীড়ন চালাচ্ছেন তাদের লক্ষ্য করে। ইইউ শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে ইরানি কর্তৃপক্ষের নৃশংস ও অসামঞ্জস্যপূর্ণ বল প্রয়োগের তীব্র নিন্দা জানায় বলেও এতে উল্লেখ করা হয়।

বিভিন্ন সূত্র গত সপ্তাহে রয়টার্সকে জানায়, ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা সোমবার তাদের বৈঠকে ইরানের বিরুদ্ধে ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞায় ৩৭টি পৃথক ধারা যুক্ত করবেন।

এর আগে, মাহসা আমিনির মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইরানের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য, রাজনৈতিক ব্যক্তি ও মোরালিটি পুলিশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাজ্য।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর