আপনি পড়ছেন

নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করায় পাকিস্তানের সাবেক তথ্যমন্ত্রী ও পিটিআই নেতা ফাওয়াদ চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল রাতে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়েরের পর আজ ভোরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

pakistan fawad arrestগ্রেপ্তারের পর ফাওয়াদ চৌধুরীকে লাহোর ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে হাজির করা হয়

গতকাল লাহোরে দলীয় সংবাদ সম্মেলনে ফাওয়াদ চৌধুরী পাঞ্জাবে পিটিআই কর্মী-সমর্থকদের ওপর দমন-পীড়নে দায়ী কাউকে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার প্রধান হিসেবে নিয়োগের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে সতর্ক করেন। পিটিআই-সমর্থিত সরকারের পদত্যাগের পর নির্বাচন কমিশন পাঞ্জাবে কাদের নিয়োগ করছে সেদিকে দেশবাসী দৃষ্টি রাখছে বলে উল্লেখ করেন।

পিটিআইর এ নেতা বলেন, আমরা নির্বাচন কমিশনে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দিয়েছি। গত ২৫ মে ইসলামাবাদ অভিমুখে পিটিআইর পদযাত্রা বন্ধ করতে যারা দমন-পীড়ন চালিয়েছিল, তাদের নিয়োগ দেওয়া উচিত হবে না।

এর কয়েক ঘণ্টা পর গতকাল রাতে নির্বাচন কমিশন সচিব উমর হামিদ ইসলামাবাদের কোহসার থানায় ফাওয়াদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। এতে বলা হয়, ফাওয়াদ চৌধুরী নির্বাচন কমিশনকে ‘সরকারের সেক্রেটারি’ অভিহিত করে বলেছেন, সরকারের আদেশগুলোই সিইসি ‘কেরানির মতো’ সই করেন।

আজ ভোরে ফাওয়াদ চৌধুরীকে লাহোরের বাসভবন থেকে তুলে নেয় পুলিশ। পরে লাহোর ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে ট্রানজিটরি রিমান্ড মঞ্জুরের পর পিটিআইর এ নেতাকে ইসলামাবাদ নিয়ে যাওয়া হয়।

এর আগে আদালতে শুনানিতে নিজের পক্ষে বক্তব্য রাখতে গিয়ে ফাওয়াদ চৌধুরী তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের কপি দেখতে চান। কপি হাতে পেয়ে তিনি বলেন, আমি গর্বিত বোধ করছি কারণ নেলসন ম্যান্ডেলার বিরুদ্ধেও এমন অভিযোগ আনা হয়েছিল।

তিনি বলেন, আমি যা বলেছি তা সারাদেশের মানুষ বলছে। পুলিশ বললে আমি নিজেই হাজির হতাম। আমি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী এবং সাবেক মন্ত্রী। আমরা পুলিশের কাছে আরও সম্মানজনক আচরণ আশা করি।

ডন জানিয়েছে, ফাওয়াদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশন সচিবের মামলায় দণ্ডবিধির ১৫৩-ক (দুটি পক্ষের মধ্যে বৈরিতা উসকে দেওয়া), ৫০৬ (অপরাধমূলক ভীতি প্রদর্শন), ৫০৫ (বিভ্রান্তি সৃষ্টিকারী বক্তব্য দান) ও ১২৪-ক (রাষ্ট্রদ্রোহ) ধারা সংযোজন করা হয়েছে।

এদিকে ফাওয়াদ চৌধুরীকে গ্রেপ্তারের পর পিটিআই চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকেও গ্রেপ্তার করা হতে পারে এমন আশঙ্কায় আজ ভোর থেকে লাহোরের জামান পার্কে ইমরানের বাসভবনের চারপাশে অবস্থান নিয়েছেন দলের কয়েক হাজার নেতাকর্মী। ফাওয়াদ চৌধুরীর মুক্তির দাবিতে সারাদেশে বিক্ষোভের ঘোষণা দিয়েছে পিটিআই।