আপনি পড়ছেন

ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ও যুক্তরাজ্যের ৩৪ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ইরান। এদের মধ্যে মহানবী (স.) ও পবিত্র কুরআন অবমাননাকারী রাজনীতিক, সাংবাদিকের নামও রয়েছে।

iran foreign ministryরাজনীতিক, সেনা-পুলিশ ও সাংবাদিকের নাম রয়েছে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞার তালিকায়

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, নিষেধাজ্ঞাপ্রাপ্তরা ইরানে ভ্রমণ করতে পারবে না। ইরানের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে তাদের হিসাব এবং ইরানের এখতিয়ারের অধীন ভূখণ্ডে তাদের সম্পদ জব্দ করা হবে।

এ সংক্রান্ত বিবৃতিতে বলা হয়, ইরানে সন্ত্রাসে উসকানি, অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ, মিথ্যা প্রচারণা এবং অর্থনৈতিক সন্ত্রাসের অংশ হিসেবে ইরানি জনগণের বিরুদ্ধে নিষ্ঠুর নিষেধাজ্ঞা বৃদ্ধির জবাবে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

নিষেধাজ্ঞার তালিকায় রয়েছেন ইইউভুক্ত দেশগুলোর ২২ ব্যক্তি ও তিন প্রতিষ্ঠান এবং যুক্তরাজ্যের আট ব্যক্তি ও এক প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে চলতি সপ্তাহে স্টকহোমে কুরআনে অগ্নিসংযোগকারী ডেনিশ রাজনীতিক রাসমুস পালুডান, ডাচ রাজনীতিক রাসমুস পালুডান, মহানবীর (স.) কার্টুন প্রকাশকারী ফরাসি ম্যাগাজিন শার্লি এবদো সম্পাদক গেরার্ড বিয়ার্ড ও কার্টুনিস্ট লরাঁ সুরিসুর নাম রয়েছে।

ফরাসি নাগরিকের মধ্যে আরও রয়েছেন মন্ত্রী অলিভিয়েঘ ক্লাইন, প্যারিসের মেয়র অ্যান হিদালগো, সাবেক প্রেসিডেন্ট ফাঁসোয়া মিতেরাঁর ছেলে রাজনীতিক গিলবার্ট মিতেরাঁ, ফাঁসোয়া বেশিউ, সাংবাদিক সিলভি কোমা, বুদ্ধিজীবী বার্নার্ড অঁরি লেভি ও নৌবাহিনী কমান্ডার এমানুয়েল স্লার। ফ্রান্সের রেডিও জে বেতারকেন্দ্রের ওপরও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ইরান।

জার্মান নাগরিকের মধ্যে রয়েছেন ইউরোপীয় পার্লামেন্ট সদস্য ডিটমার কস্টার, জর্ডানে মোতায়েন সেনা ইউনিট কমান্ডার টিমোথি হাইমবাখ, পার্লামেন্টে ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্রেটিক ইউনিয়ন (সিডিইউ) দলের নেতা ডেনিস থেরিং, ডর্টমুন্ড পুলিশের প্রধান গ্রেগর লাঞ্জ ও সেনাবাহিনীর সাইবার সিকিউরিটি সেন্টারের প্রধান টিম যান।

ইউরোপীয় পার্লামেন্টের অস্ট্রিয়ান সদস্য লুকাস মান্ডল, ইতালিয়ান সদস্য আনা বনফ্রিসকো, সুইডিশ সদস্য আবীর আল-সাহলানি, ডাচ সদস্য বার্ট গ্রুথিউস ও থিস রয়টেন ও সাবেক স্পেনিশ সদস্য আলেহো ভিদাল-কাদরাসের নামও নিষেধাজ্ঞা তালিকায় রয়েছে। একইসঙ্গে ইউরোপীয় পার্লামেন্টে ইসরায়েল সমর্থক আইনপ্রণেতাদের সংগঠন ইউরোপিয়ান ফ্রেন্ডস অব ইসরায়েলের (ইএফআই) ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া ব্রিটেনের অ্যাটর্নি জেনারেল ভিক্টোরিয়া প্রেন্টিস, ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের সলিসিটর জেনারেল মাইকেল টমলিনসন, গোয়েন্দা সংস্থা এমআই-সিক্সের সাবেক প্রধান রিচার্ড ডিয়ারলাভ, অ্যালেক্স ইয়ুংগার ও ফিল কাপেল, সেনাপ্রধান জেনারেল প্যাট্রিক স্যান্ডার্স, সাবেক প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী লিয়াম ফক্স ও কাউন্টার টেরোরিজম ডিভিশনের প্রধান বেথান ডেভিডের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ইরান।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর