আপনি পড়ছেন

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় অব্যাহতভাবে বর্বরতা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েল। পুরো বিশ্বের আহ্বান সত্ত্বেও তারা দীর্ঘমেয়াদে যুদ্ধবিরতিতে রাজি হচ্ছে না দেশটি। এ পরিস্থিতির জন্য যুক্তরাষ্ট্রকেই দায়ী করছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা ও দেশ। বর্তমান মার্কিন প্রশাসন তথা বাইডেন প্রশাসন ইচ্ছে করলেই এতে ভূমিকা রাখতে পারত। কিন্তু তা না করায় গাজায় এ পর্যন্ত সাড়ে ১৫ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। এ ইস্যুতে আগামী বছর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে বদলে যেতে পারে মার্কিন রাজনীতির গতিপথ। সে দেশের মুসলিম নেতারা এরই মধ্যে বাইডেনের পরাজয়ের ঘোষণা দিয়ে রেখেছেন। খবর নিউ ইয়র্ক পোস্ট।

abondon bidenঅ্যাবান্ডন বাইডেন

মার্কিন অঙ্গরাজ্য মিশিগানের ডিয়ারবোর্নে অনুষ্ঠিত শনিবারের (২ ডিসেম্বর) সম্মেলনে ২০২৪ সালের নির্বাচনে জো বাইডেনকে সমর্থন করা থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দিয়েছেন ৯ অঙ্গরাজ্যের মুসলিম নেতারা। সদ্য গঠিত জাতীয় জোট অ্যাবান্ডন বাইডেনের প্রধান জয়লানি হুসাইন এ ঘোষণা দিয়ে বলেন, ১৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হওয়ার পরও ইসরায়েলকে অকুণ্ঠ সমর্থন করায় আগামী নির্বাচনে আমেরিকান মুসলিমদের ভোট হারাবে ক্ষমতাসীন ডেমোক্রেটিক দল।

অ্যাবান্ডন বাইডেন জোটে রয়েছেন মিশিগান, মিনেসোটা, অ্যারিজোনা, উইসকনসিন, ফ্লোরিডা, জর্জিয়া, নেভাদা, নর্থ ক্যারোলাইনা ও পেনসিলভানিয়া রাজ্যের মুসলিম নেতারা। এসব অঙ্গরাজ্যে মার্কিন জনসংখ্যার অনুপাতে মুসলমানদের ভোটের পরিমাণ অনেক কম, তবে এসব অঞ্চলে সবচেয়ে বেশি আরব আমেরিকান মুসলিমদের বসবাস। আর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এই রাজ্যগুলোর ভোট খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

biden 24বাইডেন

কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস মিনেসোটার নির্বাহী পরিচালক এবং অ্যাবান্ডন বাইডেনের প্রধান জয়লানি হুসাইন বলেন, আমরা ঘোষণা করছি, ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বাইডেন হেরে গেছেন। আমাদের ‘হ্যাশট্যাগঅ্যাবান্ডনবাইডেন ২০২৪’ প্রচারাভিযান আসন্ন নির্বাচনে বাইডেনের পরাজয় নিশ্চিত করবে। কারণ তিনি গাজায় যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানাতে এবং নিরপরাধ ব্যক্তিদের রক্ষা করতে আগ্রহী নন।

আরব আমেরিকান ইনস্টিটিউটের (এএআই) তথ্য অনুসারে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় ৩৫ লাখ আমেরিকান মুসলিম ঐতিহ্যগতভাবে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনসহ অন্যান্য জাতীয় নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটদের সমর্থন দিয়ে আসছে। তবে গত অক্টোবরে এএআই পরিচালিত একটি জরিপে দেখা গেছে, আরব আমেরিকান ভোটারদের মধ্যে বাইডেনের সমর্থন ৪২ শতাংশ কমে গেছে।

জরিপে অংশগ্রহণকারী আরব-আমেরিকানদের মাত্র ১৭ শতাংশ নির্বাচনে বাইডেনের পক্ষে ভোট দেওয়ার কথা জানায়। অথচ ২০২০ সালে বাইডেনের পক্ষে সমর্থন ছিল ৫৯ শতাংশ। মূলত গাজায় ইসরায়েলের হামলা বৃদ্ধির পাশাপাশি বাইডেনের প্রতি মুসলিম সমর্থন কমতে শুরু করে।

এদিকে বাইডেনকে সমর্থন না করার অর্থ ট্রাম্পকে ভোট দেওয়া- এমন সম্ভাবনাও নাকচ করে দিয়েছেন মুসলিম নেতারা। তারা বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প পুনঃনির্বাচিত হলে আরও ভালো কিছু করবেন এমন আশা তারা করেন না। এ অবস্থায় মুসলিম নেতারা প্রধান দুই দলের বাইরে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী অন্য প্রার্থীদের সমর্থন দিতে পারেন। এতে তারা জিতে যাবেন, এমনটি নয়, তবে মার্কিন ভোটের রাজনীতিতে তাদের এই পরিকল্পনা বড় ধরনের পরিবর্তন আনবে বলে তারা আশাবাদী।

Get the latest world news from our trusted sources. Our coverage spans across continents and covers politics, business, science, technology, health, and entertainment. Stay informed with breaking news, insightful analysis, and in-depth reporting on the issues that shape our world.

360-degree view of the world's latest news with our comprehensive coverage. From local stories to global events, we bring you the news you need to stay informed and engaged in today's fast-paced world.

Never miss a beat with our up-to-the-minute coverage of the world's latest news. Our team of expert journalists and analysts provides in-depth reporting and insightful commentary on the issues that matter most.