আপনি পড়ছেন

ফুটবল দুনিয়াকে চমকে দিয়ে মাস খানেক আগে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে পাড়ি জমিয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। বরাবরের মতো নতুন ঠিকানাতেও পর্তুগিজ উইঙ্গারকে দেখা গেছে পুরনো জার্সিতে। জুভেন্টাসেও সাত নাম্বার জার্সি পরে খেলছেন বর্ষসেরা ফুটবলার।

ronaldo signs with juventus

রোনালদো আসার আগে তুরিনের বুড়িদের হয়ে সাত নাম্বার জার্সিটা ছিল হুয়ান কুয়াদ্রাদোর দখলে। কিন্তু প্রাণভোমরার জন্য নিজের পরিহিত জার্সিটা উৎস্বর্গ করলেন কলম্বিয়ান তারকা। এমন ত্যাগ স্বীকারের জন্য সতীর্থ কুয়াদ্রাদোকে রোনালদো ধন্যবাদ দিতেই পারেন।

সাত নাম্বার জার্সিতে অনেক রথী-মহারথীই খেলেছেন। কিন্তু এই জার্সিটার সবচেয়ে বেশি ব্র্যান্ডিং করেছেন রোনালদো। এই সাত নাম্বার জার্সিতে পর্তুগিজ সেনসেশন খেলেছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, রিয়াল মাদ্রিদের মতো ক্লাবে। জাতীয় দল পর্তুগালেও একই চিত্র।

সবমিলিয়ে সাত নাম্বার জার্সিটাকে নিজের পরিপূরক বানিয়ে ফেলেছেন রোনালদো। ‘সিআর সেভেন’ ছদ্মনামেও গোটা ফুটবল দুনিয়া চিনে থাকে তাকে। এমন একজনের আগমনে নিজের সাত নাম্বার জার্সিটা ছেড়ে বড় মনের পরিচয় দিয়েছেন কুয়াদ্রাদো। সতীর্থের এই ত্যাগের মহিমার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন রোনালদো।

বৃহস্পতিবার সতীর্থকে ধন্যবাদ জানিয়ে রোনালদো বলেছেন, ‘অবশ্যই এটা (সাত) আমার প্রিয় নাম্বার। এখানে আসার আগে আমি ক্লাবের সঙ্গে কথা বলেছিলাম। কুয়াদ্রাদোর সঙ্গেও কথা হয়েছিল। কারণ এখানে (জুভেন্টাসে) এটা তার জার্সি ছিল।’

রোনালদো আরো বলেছেন, ‘ও বলেছিল ‘‘এটা (সাত নাম্বার জার্সি) ছাড়তে আমার কোনো সমস্যা নেই। তোমাকে সাত নাম্বার জার্সি দিতে পারাটা আমার জন্য অনেক আনন্দের হবে।’’ ওর কথা শুনে আমি অবাক হয়েছিলাম। কুয়াদ্রাদো এটা খুব ভালোভাবে মেনে নিয়েছিল। ক্লাবও আমাকে সহায়তা করেছিল। জুভেন্টাসে সাত নাম্বার জার্সি পেয়ে আমি অনেক খুশি।’

গত মৌসুমে সাত নাম্বার জার্সিতে খেলেছেন কলম্বিয়ান উইঙ্গার। এই মৌসুমে জুভেন্টাসের প্রথম ম্যাচে ১৬ নাম্বার জার্সিতে মাঠে নেমেছেন কুয়াদ্রাদো। ম্যাচটাও জুভেন্টাস জিতেছিল। শনিবার ইতালিয়ান সিরি’এ লিগে শিয়েভোর বিপক্ষে নাটকীয় ম্যাচে ৩-২ গোলে জিতে শুভ সূচনা করেছিল জুভেন্টাস।