আপনি পড়ছেন

'পরিচ্ছন্নতা ঈমানের অঙ্গ'। তাই সব সময় পরিষ্কার-পরিছন্ন হয়ে থাকার বিষয়ে সজাগ থাকতে হয়। এমনকি পরিষ্কার থাকলে নিজের ও আশেপাশের সবার সুস্থতাও নিশ্চিত করা যায়। কিন্তু এমন কিছু জিনিস আছে যা বার বার পরিষ্কার করার প্রয়োজন নেই। আবার অহেতুক পরিষ্কারে সময় অপচয় হয়।

cleaning tips

রান্নাঘরের তোয়ালে খুব দ্রুতই ময়লা হয়। ব্যবহার বেশি হলে তা বার বারই ধোয়া লাগে। কিন্তু গন্ধ না আসলে বা খুব ময়লা না হলে শুধু অভ্যাসবশত তা ধোয়া থেকে বিরত থাকুন। এতে সময় বাঁচবে, আর ওই ডিটারজেন্ট ব্যবহার করা যাবে অন্য কোনো দরকারি কাজে।

পানি বা ডিটারজেন্ট দিয়ে কাঠের আসবাব পরিষ্কার করা থেকে বিরত থাকুন। অতিরিক্ত পরিষ্কারের ফলে কাঠের আসবাব ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ফলে ধীরে ধীরে সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায়। স্প্রে জাতীয় কোনো পরিষ্কারকও ব্যবহার করা যাবে না। শুকনা কাপড় দিয়ে মুছে কাঠের আসবাব পরিষ্কার করুন।

আয়নায় নিজেকে দেখেন তো সব সময়ই। কিন্তু দু-একটি আঙুলের ছাপেই ব্যতিব্যস্ত হয়ে আয়না পরিষ্কারে লেগে যাবেন না। এতে নষ্ট হতে পারে সাধের আয়না, পেছনের আস্তর ক্ষয়ে যেতে পারে। তাই বেশি ময়লা না হলে আয়না পরিষ্কারে হাত না দেয়াই ভালো।

সামান্য নোংরা হলে কার্পেটও পরিষ্কারের দরকার নেই। ডিটারজেন্টের অতিরিক্ত ব্যবহার স্থায়ী দাগ ফেলে দিতে পারে কার্পেটে। অতিরিক্ত নোংরা হলেই কেবল ধুয়ে ভালো করে রোদে শুকিয়ে নিন কার্পেট। জিন্স বা আন্ডারওয়ার যাই হোক খুব বেশি বেশি ধুতে যাবেন না। তবে নিজে ধোয়ার পর জিন্সটি ড্রাই ক্লিন করে নিলে অনেক দিন পড়া যাবে।

দিনভর পরিষ্কারের উপর রাখেন হাত দুটো? তাহলে সাবধান। হ্যান্ডওয়াশ বা সাবান যা দিয়েই ধোয়া হোক বার বার ধোয়ার কারণে চামড়া ফাটা, শুষ্কতা, ফ্যাকাশে হয়ে যাওয়া ছাড়াও হতে পারে চর্মরোগ। তাই অতিরিক্ত হাত ধোয়ার অভ্যাস বাদ দিন।

প্রতিদিন চুলে শ্যাম্পু করার অভ্যাসটিও ঠিক নয়। মাথার ত্বকের উপকারী তেল দূর হয়ে ত্বক শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে যায়। তাছাড়া খুব ঘন ও কোঁকড়া চুলেও প্রতিদিন শ্যাম্পুর দরকার নেই। খুব পরিশ্রমী বা আদ্রতায় বাস করেন এমন লোকের জন্যই প্রতিদিন শ্যাম্পু।

আবার সখের গাড়িটিও প্রতিদিন ধোয়ার দরকার নেই। অতিরিক্ত পরিষ্কারের ফলে গাড়ির উপরিভাগ নষ্ট হয়, রঙ জ্বলে যায়। মাসে তিন থেকে চার বারের বেশি গাড়ি ধোয়া উচিত নয়। তাই পরিষ্কার তো থাকবেনই কিন্তু সচেতনতার সাথে। এতে করে সময় যেমন বাঁচবে, তেমনি জিনিসগুলোর স্থায়িত্ব বাড়বে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর