আপনি পড়ছেন

প্রচণ্ড গরমে বাইরে চলাফেরা যেমন কষ্টের, তেমনি বাসায় থাকলেও মেলেনা তেমন একটা শান্তি। গরমের প্রকোপ ঘরে বাইরে দুই জায়গাতেই। ইট-ইস্পাতের তৈরি এই নগরীতে রোদের কারণে বাড়ি হয়ে থাকে গরম। 

house inside

গরমের হাত থেকে রেহাই পেতে অনেকে বাড়িতে বা অফিসে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্র (এসি) লাগিয়ে থাকেন। কিন্তু সবার পক্ষে ব্যয়বহুল এসি কেনাটা সম্ভব নয়। অনেকের আবার এসির মধ্যে দিনভর থাকতে পারেন না অথবা থাকলেও বেশ সমস্যায় পড়তে হয়। কিন্তু আপনি জানেন কি, এসি ছাড়াও ঘর অনেক ঠান্ডা রাখা যায়। আসুন জেনে নেই তেমনি কয়েকটি উপায়-

আমরা অনেকে বাসায় শৌখিন পর্দা ব্যবহার করি। কিন্তু গরমকালে সাধারণ পর্দা ব্যবহার করা উচিত, এতে বাইরের সূর্যের তাপ আটকানো যায়।

ঘরের মধ্যে বাতাস চলাচলের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা থাকাটা খুব জরুরি। এর জন্য আপনাকে শোয়ার সময় টেবিল ফ্যানটা জানালার বিপরীত দিকে রাখতে হবে। এতে ক্রস ভেন্টিলেশনের মাধ্যমে বাতাস ভালোভাবে চলাচল করতে পারবে ও ঘর ঠান্ডা হবে।

সূর্যাস্তের পরে ঘরের জানালা-দরজা খুলে দিতে হবে। এতে করে ঘরে ঠান্ডা বাতাস ঘরে এলে সারাদিনের জমে থাকা গুমোট ভাব দূর হয়ে যাবে।

শীতের সময় যেমন গরম বিছানায় শুলে আরাম বোধ হয়, ঠিক তেমনি গরমের সময় ঠান্ডা বিছানায় শুলে আপনি আরাম পাবেন। এর জন্য শোয়ার কিছুক্ষণ আগে একটা বিছানার চাদর ভাঁজ করে ফ্রিজে রেখে দিন, শোয়ার সময় সেই চাদরটি বিছিয়ে শুয়ে পড়বেন। গরমে হালকা রঙের সুতির বেডশিড ব্যবহার করুন।

রাতে শোয়ার সময় একটা পাত্রে বরফের টুকরো রেখে টেবিল ফ্যানের সামনে রাখুন, ঠান্ডা বরফের জন্য ঘরের পরিবেশ ঠান্ডা হয়ে যাবে, আপনি আরাম করে ঘরে শুতে পারবেন।

বাড়ির পাশে পতিত জমি থাকলে পূর্ব ও পশ্চিম দিকে বড় গাছ লাগান। এতে সারাদিন বাড়িতে রোদ পড়ার হাত থেকে বাঁচবেন। ঘরও অপেক্ষাকৃত ঠান্ডা থাকবে।

সূত্র: এনডিটিভি বাংলা

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর