advertisement
আপনি পড়ছেন

ফেসবুক ও ইউটিউবসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোকে নিবন্ধনের আওতায় এনে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে চায় সরকার। আজ বুধবার সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে এ কথা জানানো হয়।

facebook youtube 1ফেসবুক ও ইউটিউব, ফাইল ছবি

এদিন কমিটির সভাপতি মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, ইতোমধ্যে নিবন্ধন করে ভ্যাটের আওতায় এসেছে গুগল ও আমাজন। অন্য যেসব প্রতিষ্ঠান এখনো করেনি, তাদেরও নিবন্ধনের আওতায় আনতে চাই আমরা।

সবারই জবাবদিহি থাকার ওপর গুরুত্বাপোর করে তিনি বলেন, সামাজিক মাধ্যমে অনেকেই ভালো কাজ করছে। তারা স্বাধীনভাবে কাজ করুক, সংবাদ আদান-প্রদান করুক। তাতে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করবে না সরকার।

google amazonগুগল ও অ্যামাজান, ফাইল ছবি

তবে কিছু সংখ্যক ব্যবহারকারী নানা তথ্য-উপাত্ত নিয়ে মিথ্যাচার করছে উল্লেখ করে মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী বলেন, এটা স্বাভাবিক জীবনযাত্রার জন্য, সবার জন্য হুমকিস্বরূপ। এ জন্য তাদের আইনের আওতায় আনতে নিবন্ধন করতে বলা হয়েছে।

ফেসবুক-ইউটিউবে কে কোত্থেকে কী করে, তা পাওয়া যায় না মন্তব্য করে তিনি বলেন, এসব প্রতিষ্ঠানের অফিস দেশে না থাকায় অনেক কিছুই নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। ফলে একজনের দোষে সমালোচিত বা ক্ষতিগ্রস্ত হয় ৫ জন। নিবন্ধন হলে অপরাধীকে জবাবদিহিতার আওতায় আনা যাবে, অন্যরা ভোগান্তির শিকার হবে না।

akm mozammel haqueআ ক ম মোজাম্মেল হক, ফাইল ছবি

এ বিষয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যানকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলেও জানান আ ক ম মোজাম্মেল হক। একইভাবে বাংলাদেশ ব্যাংককেও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

সামাজিকমাধ্যমে কাদের বিজ্ঞাপন যায়, কীভাবে যায় এবং বিজ্ঞাপনের টাকা কীভাবে লেনদেন হয়, তা জানতে চাওয়া হয়েছে। এসব তথ্য-উপাত্ত কমিটির পরের সভায় উপস্থাপন করতে বলা হয়েছে, বলেন মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী।