advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 14 মিনিট আগে

দুর্দান্ত শুরুটা ধরে রাখতে পারল না চট্টগ্রাম। টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে ১৬২ রান তাড়া করে বড় ব্যবধানে জেতা দলটি খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে আজ আট উইকেটে হেরেছে। সেটাও ৩৭ বল হাতে রেখে।

 rahmanullah gurbaz bpl khulna

চট্টগ্রামের এভাবে উড়ে যাওয়াতে বড় অবদান আফগানিস্তানের তরুণ ব্যাটসম্যান রহমতুল্লাহ গুলবাজের। খুলনার হয়ে ওপেনিংয়ে ব্যাটিং করতে নেমে ঝড় তুলেছিলেন তরুণ ক্রিকেটার। মাত্র ১৯ বলে ৪ চার ৫ ছয়ে ৫০ রান করেছেন আফগান তরুণ। রিলে রুশো ৩৮ বল খেলে ৭ চার ২ ছয়ে ৬৪ রানে অপরাজিত ছিলেন। মুশফিকুর রহিম চারে ব্যাটিং করতে নেমে ২২ বলে ২৮ রান করেন। যাতে ১৩.৫ ওভারেই ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য ১৪৬ রান তুলে ফেলে খুলনা।

প্রথম ইনিংস:

এর আগে খুলনার পেসাররা বড় সংগ্রহ গড়তে দেয়নি চট্টগ্রামকে। পাওয়ার প্লের ছয় ওভারে উইকেট না হারালেও মাত্র ৩৯ রান তুলতে পেরেছেন চট্টগ্রামের দুই ক্যারিবীয়ান ওপেনার চ্যাডউইক ওয়ালটন ও লিন্ডল সিমন্স। সিমন্স ২৩ বলে ২৬ করে ফিরলে দুজনের ৪৫ রানের জুটি ভেঙ্গেছে। এরপর নাসির হোসেন, নুরুল হাসান সোহানরা দাঁড়ালেও ইনিংস বড় করতে পারেননি।

শেষ দিকে মুক্তার আলি ১৪ বলে ৪ ছয়ে ২৯ রানের ঝড়ো একটা ইনিংস খেললে শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রানের সংগ্রহ গড়ে চট্টগ্রাম। নাসির ২৭ বলে ২৪ রান করেছেন, নুরুল ১৭ বলে করেছেন ১৯। রংপুরের হয়ে একটি করে উইকেট নিয়েছেন রবি ফ্রাইলিংক, শফিউল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম ও শহিদুল ইসলাম।

দুই দলের পরবর্তী ম্যাচ:

চট্টগ্রাম তাদের পরবর্তী ম্যাচ খেলতে নামবে শনিবার। দুপুর দেড়টায় রংপুর রাইডার্সের মুখোমুখি হবে দলটি। খুলনার ম্যাচ বেশ কয়েকদিন পর। চট্টগ্রাম পর্বে ২০ তারিখে রংপুর রাইডার্সের মুখোমুখি হবে মুশফিকুর রহিমের দল।

sheikh mujib 2020