advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশ ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল এবং জনপ্রিয় অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। তার নেতৃত্বে বদলে গেছে দেশের ক্রিকেট। স্বাভাবিকভাবেই নড়াইল এক্সপ্রেসের সম্মান অনেক উঁচুতে। এতটা সম্মান পাননি দেশের কোনো ক্রিকেটারই।

mashrafe mortaza 2020

ক্রিকেট ক্যারিয়ার চলাকালীনই মাশরাফি নেমে পড়েছেন রাজনীতির মাঠে। হয়েছেন সংসদ সদস্য। কিন্তু এসব সম্মানের জায়গাগুলো কখনোই স্পর্শ করেনি মাশরাফিকে। ক্ষমতার চেয়ারে বসে বাড়তি সুযোগও কখনো তিনি নেননি।

সিলেটে নেতৃত্ব ছাড়ার দিনে সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বলেছেন, ‘অধিনায়কত্ব যখন শুরু করেছি বা পরে, কখনো এসব অনুভব করিনি। আমার আরেকটা পরিচয় এমপি; এটিও কখনো সেভাবে অনুভব করিনি। লাল পাসপোর্ট, বাড়ি-গাড়ি নেইনি। আসলে এসব থেকে সবসময়ই দূরে থাকতেই পছন্দ করেছি। দূরে থাকাটাই ভালো মনে করেছি।’

মাশরাফির কাছে দায়িত্ব মানে প্রভাব খাটানো নয়। তার মতে ক্ষমতা পাওয়া মানে নিজের সবটুকু ঢেলে দেওয়া। তিনি বলেছেন, ‘আমি যখন এই চেয়ারটা (দায়িত্ব বোঝাতে) পেয়েছি, সম্ভাব্য সবকিছুই ছিল এই চেয়ারটা পাওয়ার মতো। ভালো যা কিছু করতে থাকব, এটা কাছে আসতে থাকবে। যখনই আমি এই চেয়ারটা পেলাম, তখনই ওখানে শেষ লেখা হয়েছে। এই চেয়ার পাওয়ার আকাঙ্ক্ষা আর নেই।’

সদ্যই নেতৃত্ব ছাড়া মাশরাফি আরো বলেছেন, ‘এই চেয়ারটার সর্বোচ্চ প্রয়োগ করা উচিত। এটার প্রভাবটা আমি অন্যভাবে খাটাতে চাই না। আমি জিনিসটা এভাবে দেখি যা আমি অর্জন করব বা অর্জন করতে যাচ্ছি। তা পাওয়ার পর ওটার মূল্য আর নাই। তখন সেটার মূল্যায়ন হবে আমি কিভাবে এটার প্রয়োগ করেছি।’

sheikh mujib 2020