advertisement
আপনি দেখছেন

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে অভিষেক হয় শামিম হোসেন পাটোয়ারির। শুরুতেই নিজের জাত চিনিয়েছেন এই তরুণ। বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল মনে করেন, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঘরের মাঠে আসন্ন টি-টোয়েন্টি সিরিজে আসল পরীক্ষা অপেক্ষা করছে শামিমের জন্য।

shamim patwaryশামিম পাটোয়ারি

অভিষেক ম্যাচে ১৩ বলে ২৯ রানের পর সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে ১৫ বলে ৩১ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন শামিম। এরপর থেকেই প্রশংসায় ভাসছেন চাঁদপুরের এই মারকুটে ব্যাটিং অলরাউন্ডার। আশরাফুল অবশ্য এখনই শামিমকে ফুল মার্কস দিতে রাজি নন।

জস হ্যাজেলউড, মিচেল মার্শ, মিচেল স্টার্ক, অ্যান্ড্রু টাইদের মতো দারুণ সব পেসার আছে অস্ট্রেলিয়া দলে। যারা টানা ১৪০ কিলোমিটার গতিতে বল করে যেতে পারেন। সর্বকনিষ্ঠ সেঞ্চুরিয়ানের মতে, এসব বোলারদের বিপক্ষে শামিম নিজেকে প্রমাণ করতে পারলে লাভটা হবে বাংলাদেশ ক্রিকেটেরই।

mohammad ashraful smailমোহাম্মদ আশরাফুল

গণমাধ্যমকে আশরাফুল বলেন, ‘শামীমের ব্যাটিং আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে। ও ঘরোয়া ক্রিকেটে যেভাবে ব্যাটিং করে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও সেভাবেই করেছে। এটা দেখে খুবই ভালো লাগছে। এখন দেখার বিষয় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কীভাবে সামাল দেয়।’

‘আমাদের ঘরোয়া ক্রিকেটে যে খেলাগুলো হয়, সেখানে সর্বোচ্চ ১২৫, ১৩০, ১৩৫ গতির বল খেলে অভ্যস্ত শামীম। জিম্বাবুয়েতেও তাকে খুব বেশি পরীক্ষা দিতে হয়নি। ওখানেও ১৩০-১৩৫ গতির বল খেলছে।’

‘সামনে আমাদের দল অনেকগুলো টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে। অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলা আছে। ওখানে দেখার বিষয় ১৪০ কিলোমিটারের বেশি গতির বলের চ্যালেঞ্জগুলো শামিম কীভাবে নিচ্ছে, পাওয়ার হিটিংয়ে কতটা সফল হচ্ছে। এই জায়গায় যদি সফল হতে পারে, সেটা ওর জন্য যেমন ভালো, বাংলাদেশ ক্রিকেটেরও উন্নতি হবে।’ যোগ করেন আশরাফুল।