advertisement
আপনি দেখছেন

প্রায় সবকিছুই প্রস্তুত ছিল। অপেক্ষা ছিল ওয়ানডে সিরিজের প্রথম টসের। এরপরই এলো নেতিবাচক খবরটা। শেষ মুহূর্তে পাকিস্তান সফর বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল। নিরাপত্তার অজুহাতেই মূলত দেশে ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কিউইরা। তাতে সিরিজ শুরুর আগেই তা বাতিল হয়ে গেল। যা পাকিস্তান ক্রিকেটের জন্য বড়সড় একটা ধাক্কা হয়েই এলো।

imran khan pakistan cricket

বল মাঠে গড়াতে পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পর্যন্ত চেষ্টা করেছেন। নিরাপত্তা ইস্যুতে আশ্বস্ত করে নিউজিল্যান্ড প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডেনকে ফোন করেন ইমরান। কিন্তু তাতেও কাজের কাজ হয়নি। পাকিস্তান থেকে দ্রুত দল ফেরাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে রাগবির দেশটি। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের এমন সিদ্ধান্তে হতাশ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

আগামী মাসেই পাকিস্তান সফরে আসার কথা রয়েছে ইংল্যান্ডের। নিউজিল্যান্ড সফর বাতিল করায় ইংলিশদের পাকিস্তান সফর নিয়ে দেখা দিল প্রবল অনিশ্চয়তা। ইংলিশরা বিশ্বকাপ প্রস্তুতি হিসেবে পাকিস্তান সফরে আসবে কিনা সেই প্রশ্নর উত্তর তোলা থাকল ভবিষ্যতের হাতে। আপাতত নিউজিল্যান্ডকে নিয়ে মাতম চলছে পাকিস্তানজুড়ে।

আজ পিসিবির তরফ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‌‌'সফরকারী সব দলের জন্য নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা করে থাকে পাকিস্তান সরকার ও পিসিবি। নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট দলকেও আশ্বস্ত করা হয়েছিল। পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী (ইমরান খান) ব্যক্তিগতভাবে ফোন করেন নিউজিল্যান্ড প্রধানমন্ত্রীকে। তাদের মধ্যে কথাও হয়েছে। জানানো হয়েছে, পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা বিশ্বের অন্যতম সেরা। সফরকারী দলের নিরাপত্তা নিয়ে আশঙ্কার ন্যূনতম কারণ নেই।'