advertisement
আপনি পড়ছেন

বয়স ৩৮। কিন্তু বল হাতে তারুণ্যের দীপ্তি নিয়ে হাজির মাশরাফি বিন মুর্তজা। ৪০২ দিন পর প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফিরেও উজ্জ্বল বোলার মাশরাফি। মিরপুর স্টেডিয়ামে আজ সিলেট সানরাইজার্সের বিপক্ষে ৪ ওভারে ২১ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন নড়াইল এক্সপ্রেস। যেখানে ডট বল ছিল ৯টি।

mashrafe bin murtaza bplমাশরাফির বোলিং-ব্যাটিং

মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকা হেরে গেলেও মাশরাফির ফেরাটা খারাপ হয়নি। লেন্ডল সিমন্স ও এনামুল হক বিজয়ের উইকেট নিয়েছেন তিনি। নিজের দ্বিতীয় ও শেষ ওভারে উইকেট নিয়েছেন মাশরাফি। ইনজুরির কারণে বিপিএলের শুরু থেকে খেলতে পারেননি সাবেক অধিনায়ক। ইনজুরি কাটিয়ে অবশেষে খেলায় ফিরেছেন তিনি। সর্বশেষ ২০২০ সালের ১৮ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু টি- টোয়েন্টি কাপে খেলেছিলেন মাশরাফি।

ম্যাচ শেষে ঢাকার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহও মাশরাফির বোলিংয়ের প্রশংসা করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘আমি মনে করি, এটা আমাদের জন্য অনেক বড় প্রেরণার। মাঠে ফিরতে নিজের ফিটনেস এবং বোলিং স্কিল নিয়ে কঠোর পরিশ্রম করছিলেন। এক বছরেরও বেশি সময় পর মাঠে ফিরেছেন। শুরুতে উইকেট এনে দিয়েছেন। দুটি উইকেট পেয়েছেন। ওভারঅল দল হিসেবে আমরা ভালো করিনি।’

mahmudullah bplমাহমুদউল্লাহ, ফাইল ছবি

ম্যাচে ১৮.৪ ওভারে ১০০ রানে অলআউট হয়েছিল ঢাকা। পরে ১৭ ওভারে ৩ উইকেটে ১০১ রান তুলে ম্যাচ জিতে নেয় সিলেট।

রান কম হলেও উইকেট নিয়ে অভিযোগ করেননি মাহমুদউল্লাহ। বরং নিজেদের ব্যাটিং নিয়ে হতাশ তিনি। ঢাকার অধিনায়ক বলেছেন, ‘উইকেট খুব ভালো ছিল। উইকেট নিয়ে কোনো অভিযোগ নেই। আরো ভালো ব্যাটিং করা উচিত ছিল। যেভাবে আমরা ব্যাটিং করেছি তা হতাশাজনক ছিল। শুরুটা ভালো করিনি এবং আমাদের কোনো জুটি হয়নি। মধ্যভাগেও আমাদের ব্যাটিং ভালো হয়নি। কোনো জুটি পাইনি। ব্যাটিংয়ে অ্যাফোর্ট দিতে পারিনি, এটা হতাশাজনক ছিল।’