advertisement
আপনি পড়ছেন

এ বছরই মাঠে গড়াতে যাচ্ছে বাংলাদেশ সুপার লিগ (বিএসএল)- নামের ফুটবল আসর। ঘরোয়া ফুটবলে নবজাগরণের অসীম সম্ভাবনা থেকেই এই আসর আয়োজন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। বিএসএলের ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে এর মধ্যেই নাম ঘোষণা করা হয়েছে বিশ্ব ফুটবলের অবিসংবাদিত তারকা দিয়েগো ম্যারাডোনার। তার ছোঁয়ায় কি জেগে উঠবে বাংলাদেশের ফুটবল?

bangladesh super league will take place this year

একটা সময় ফুটবলই ছিলো বাংলাদেশের এক নম্বর খেলা। প্রশ্নাতীত সমর্থন ছিলো ফুটবলের প্রতি। ঢাকার ক্লাবগুলোর মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিলো আন্তর্জাতিক মানের। আবাহনী- মোহামেডানের খেলা হলে পুরো দেশ ভাগ হয়ে যেতো। কিন্তু সেই সব দিন এখন কেবলই অতীতে বিলীন।

তাই বলে বসে নেই বাফুফে। ফুটবলের পুনর্জন্মের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছে দেশের সর্বোচ্চ ফুটবলসংস্থা। এরই ধারাবাহিকতায় এবার বাংলাদেশ আয়োজন করতে যাচ্ছে ফ্রেঞ্জাইজিভিত্তিক ফুটবল লিগ।

চলতি মাসের ২৮ তারিখে ঢাকায় বিএসএলের লোগো উন্মোচন করা হবে। লোগো উন্মোচনের দিনই বাংলাদেশের উপস্থিত থাকার কথা ম্যারাডোনার। এ দেশের ফুটবলার থেকে শুরু করে সাধারণ ফুটবল দর্শকদের কাছে ম্যারাডোনা শুধুমাত্র কিংবদন্তীর নাম নয়; একজন স্বপ্নের মানুষের নামও। তার নামে এখনো যে উন্মাদনা এই দেশে, তা হয়তো ম্যারাডোনার নিজের দেশ আর্জেন্টিনায়ও।

এমন মানুষের ছোঁয়ায়ও যদি ফুটবলের সোনালী অতীত ফিরে না আসে, তবে হয়তো বাংলাদেশ ফুটবলের এপিটাফ লেখে ফেলতে হবে। ফুটবলের নব জাগরণের গণজোয়ার হয়তো এবারই আসবে। এবারই হয়তো ক্রিকেটের পর ফুটবলেও বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে বাংলাদেশ।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন

মেসির দেশে লাল কার্ড দেখানোয় রেফারিকে গুলি

নেইমারের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ