advertisement
আপনি দেখছেন

নিজের দেয়া কথা রাখতেই গিয়েই বিপদে পড়লেন বিজেপির প্রাক্তন উপদেষ্টা এবং কুটনৈতিক সুধিন্দ্র কুলকার্নি। ভারতীয় সেনাবাহিনীর নিষেধ সত্ত্বেও পাকিস্তানী লেখক এবং সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী খোরশেদ কাসুরির বই 'নাইদার অ্যা হক, নর অ্যা ডাভ' বইটি প্রকাশ করেন তিনি। ফলে ক্ষুব্ধ হয়ে দেশটির সেনাবাহিনী কালি মেখে দেয় সুধিন্দ্র কুলকার্নির মুখে।

sudhindro kulkarni

বেশ কিছু দিন আগে খোরশেদ কাসুরির লিখা বইটি ভারতে প্রকাশের ঘোষণা দিয়েছিলেন সুধিন্দ্র। সেনাবাহিনীর নিষেধ সত্ত্বেও গত সোমবার ওরলির নেহেরু সেন্টারে বইটি প্রকাশের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে খোরশেদ কাসুরিও স্বয়ং উপস্থিত হয়ে বক্তব্য দেন।

ভারতীয় সেনাবাহিনী এই অনুষ্ঠান করার বিরোধিতা করেই এতোদিন শাসিয়ে আসছিল সুধিন্দ্রকে। কিন্তু সাবেক এ কুটনৈতিক সেনাবাহিনীর অমতে এই অনুষ্ঠান করায় সেনাবাহিনী এবং তাদের সমর্থকগণ তার উপর রাগে ফেটে উঠে। যার পরিপেক্ষিতে সারা মুখে কালি মেখে দেয় বিজেপির সাবেক এ উপদেষ্টার। এর আগে বইপ্রকাশ অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফডণবীস কড়া নিরাপত্তার আশ্বাসও দিয়েছিলেন সুধিন্দ্রকে। কিন্তু তাতেও ঠেকানো যায় নি এমন অপ্রীতিকর ঘটনা।

বিষয়টিকে গণতন্ত্রের পরিপন্থি বলে উল্লেখ করেছেন অনেকেই। অনেকেই আবার বলছেন ভারতের মত সভ্য একটি দেশে এ ধরনের অসভ্য ঘটনা কখনই কাম্য নয়। ঘটনাটি বিশ্ব দরবারে ভারতকে বর্বর রাষ্ট্র হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেবে।

তবে দেশটির সেনাবাহিনী ঘটনাটি তাদের দেশপ্রেম হিসেবেই প্রচার করছেন। এ বিষয়ে সেনাবাহিনীর নেতা সঞ্জয় রাউত বলেন, 'ওটা কালি নয়, আমাদের সৈনিকদের রক্ত। দেশের মানুষের আবেগের চেয়ে পাকিস্তানের কাউকে সম্মান দিলে এমন ঘটনার মুখোমুখি হতে হবে। তিনি আরো বলেন, কাসুরির সাথে আমাদের কোনও শত্রুতা নেই। আমরা কেবল পাকিস্তান বিরোধী। কালি ছিটিয়ে প্রতিবাদ জানানোটা আমাদের একটি গণতান্ত্রিক পদ্ধতিমাত্র।'

 

আপনি আরো পড়তে পারেন 

২৪ ঘণ্টায় আইএস-এর ৬৩টি অবস্থান ধ্বংস

সিরিয়ায় আমরা পুরোপুরি ব্যর্থ: ওবামা

বিমানবাহী রণতরী সরিয়ে নিলো আমেরিকা