advertisement
আপনি দেখছেন

মনে আছে সেই আবদুল হালিমের কথা? ঘুমন্ত সন্তানকে কোলে নিয়ে যে পিতা কলম বিক্রি করে ফিরতেন বৈরুতের রাস্তায় রাস্তায়। অনলাইনের কল্যাণে বিশ্বজুড়ে বেশ পরিচিতি পান সেই হতভাগ্য পিতা।

abdul halim pen seller

আর এই অনলাইনের কল্যাণেই এবার তাঁর ভাগ্য ফিরেছে বলে জানিয়েছে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। এখন তিনি মোট তিনটি ব্যবসা পরিচালনা করেন।

৩৩ বছর বয়সী ওই পিতা আবদুল হালিমের জন্য অনলাইনেই সারা বিশ্ব থেকে সাহায্য আসতে শুরু করে। ঘুমন্ত সন্তান কোলে নিয়ে তাঁর কলম ফেরি করে বেড়ানোর ছবিটি তুলেছিলেন নরওয়ের

অনলাইন জার্নালিস্ট গিসুর সিমনআরসন। সেই সিমনআরসনই টুইটারের মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে পাঁচ হাজার ডলার সংগ্রহ করেন আবদুল হালিমের জন্য।

এছাড়া সারা বিশ্ব থেকে বহু মানুষই এগিয়ে আসেন আবদুল হালিমের সাহায্যে। মোট এক লাখ ৯১ হাজার ডলার সাহায্য পাওয়া যায় তাঁর জন্য।

এই অর্থ দিয়ে সম্প্রতি তিনি তাঁর ভাগ্য পরিবর্তন করেছেন। তিনটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন বৈরুতে। এর মধ্যে দু’টি বেকারি ও একটি কাবাবের দোকান। তাঁর দোকানে কাজ করছে ১৬ জন সিরিয়ান শরণার্থী।

 

আপনি আরও পড়তে পারেন

বারাক ওবামা: যুদ্ধ সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে, ইসলামের বিরুদ্ধে নয়

মাহাথির: আকাশ থেকে বোমা ফেলাটাও সন্ত্রাসী কাজ

রাষ্ট্রপতি: বর্তমান বিশ্ব আরও জটিল হচ্ছে

sheikh mujib 2020