advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 14 মিনিট আগে

অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্র সৈকতে দৈত্যাকৃতির একটি অদ্ভুত ধরনের মাছ পাওয়া গেছে। তীরে ভেসে আসা ছয় ফুট লম্বা এই সামুদ্রিক মাছটির ছবি ইতোমধ্যেই সামাজিক যেগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। দেশটির অ্যাডিলেড শহর থেকে ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণে কুরঙ ন্যাশনাল পার্কে মাছটিকে পাওয়া যায়। বিশেষজ্ঞরা এটিকে সানফিশ হিসেবে শনাক্ত করেছেন।

marine sunfish

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, একদল জেলে সৈকতে এক দশমিক ৮ মিটার (৬ ফুট) লম্বা মাছটিকে দেখতে পান। তারা দূর থেকে ভেবেছিলেন, এটি হয়তো কোনো কাঠের খণ্ড হবে। কিন্তু কাছে দেখতে পান, এটি আসলে বিশালাকৃতির একটি সামুদ্রিক মাছ।

পরে অদ্ভুতাকৃতির মাছটি কয়েকটি ছবি তুলে লিনেত গোজেলাক নামে এক ব্যক্তি তার পার্টনারের ফেসবুক পেজে আপলোট করেন। এতে তিনি লিখেছেন, ‘গুগলের মাধ্যমে মাছটির নাম সানফিশ বলে পেলাম। এর আগ পর্যন্ত আমি এটিকে সত্যি সত্যি মাছ বলে মনে করতে পারিনি।’

গোজেলাক বলেন, ‘পার্টনার স্টিভেন জোন্স মাছ ধরার কাজ করছেন। তাই তিনিই জানেন এটা মাছ। কিন্তু এর আগে আমরা বাস্তবে এমনটি কখনো দেখেনি। মাছটি খুবই ভারী এবং এর চামড়া গণ্ডারের চামড়ার মতো বেশ খসখসে।’

বিবিসির খবরে বলা হয়, মাছটি উদ্ধার না করায় পরবর্তীতে ঢেউয়ের তোড়ে সমুদ্রে ভেসে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এটি বিশ্বের সবচেয়ে ভারী কাঁটাযুক্ত মাছ। নাতিশীতোষ্ণ সামুদ্রিক পানিতে এ মাছ পাওয়া যায়। এর বড় ভোঁতা আকৃতির মাথার সঙ্গে ছোট মুখ যেন একেবারেই বেমানান। এছাড়া পিঠে ও পেছনে লম্বা পাখনা আছে।

একজন মৎস বিশেষজ্ঞ জানিয়েছেন, সানফিশ ৪ মিটারের (১৩ ফুট) বেশি লম্বা ও আড়াই টনের (২,৫০০ কেজি) বেশি ওজনের হতে পারে। ফলে অস্ট্রেলিয়ার সৈকতে পাওয়া মাছটিকে সেই তুলনায় ছোট বলেই মনে হচ্ছে।

sheikh mujib 2020