advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 57 মিনিট আগে

কাতার চাইলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের একাংশ অর্থাৎ আবু ধাবি ও দুবাইয়ের এক-তৃতীয়াংশ অন্ধকারাচ্ছন্ন করে দিতে পারে বলে জানিয়েছেন দেশটির (কাতার) পার্লামেন্ট স্পিকার আহমাদ আল মাহমুদ।

qatari speaker

তিনি বলেছেন, কাতার সংযুক্ত আরব আমিরাতে গ্যাস রপ্তানি বন্ধ করে দিলে আবু ধাবি ও দুবাইয়ের এক-তৃতীয়াংশ অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে পড়বে।

রাশিয়ান টিভি চ্যানেল আরটি-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কাতারি স্পিকার এ সব কথা বলেন বলে জানিয়েছে পার্সটুডে।

প্রসঙ্গত, কাতারের রাজধানী দোহায় বিশ্বের স্বাধীন দেশগুলোর সংসদীয় ফোরাম আন্তঃসংসদীয় ইউনিয়নের (আইপিইউ) সাধারণ পরিষদের বৈঠক উপলক্ষে রুশ টিভিকে এ সাক্ষাৎকার দেন তিনি।

আল মাহমুদ বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত কাতারের ওপর অবরোধ আরোপ করেছে। কিন্তু কাতার পাল্টা পদক্ষেপ নেয়নি। কাতার চাইলে আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী আমিরাতে গ্যাস রপ্তানি বন্ধ করে দিতে পারে।

মিশর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মিশরের তিন লাখ নাগরিক কাতারে কাজ করে। মিশর অন্যায় আচরণ করার পরও কাতার পাল্টা পদক্ষেপ নেয়নি। একজন মিশরীয়কে কাতার থেকে ফেরত পাঠানো হয়নি। কিন্তু কাতারের ওপর অবরোধ আরোপকারী চারটি দেশই তাদের ভূখণ্ড থেকে সব কাতারিকে চলে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। এমনকি সেসব দেশে কাতারের চিকিৎসাধীন নাগরিকদেরকেও থাকতে দেওয়া হয়নি।

উল্লেখ্য, কাতার সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন করছে এমন অভিযোগ এনে ২০১৭ সালের ৫ জানুয়ারি থেকে কাতারের ওপর অবরোধ আরোপ করে রেখেছে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, মিশর ও বাহরাইন।

এরই অংশ হিসেবে দোহারের ওই আইপিইউ সম্মেলন বয়কট করেছে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিশর।

sheikh mujib 2020